kalerkantho

শনিবার । ৯ মাঘ ১৪২৭। ২৩ জানুয়ারি ২০২১। ৯ জমাদিউস সানি ১৪৪২

আগুনে পুড়ল ক্লাব ঘর, অল্পের জন্য রক্ষা আদালত ভবনসহ ৮ দপ্তর

আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি   

৩০ নভেম্বর, ২০২০ ২৩:৩১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আগুনে পুড়ল ক্লাব ঘর, অল্পের জন্য রক্ষা আদালত ভবনসহ ৮ দপ্তর

বরগুনার আমতলী উপজেলা পরিষদ কম্পাউন্ডের মধ্যে তৃতীয় শ্রেণী কর্মচারীদের পরিত্যাক্ত ক্লাব ঘরে আগুন লেগে অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছে আদালত ভবনসহ পরিষদের ৮টি সরকারি দপ্তর। পুড়ে ছাই হয়ে গেছে ক্লাব ঘরটি। কম্পাউন্ডের মধ্যে আগুন লাগার ঘটনায় জনমনে আতঙ্ক বিরাজ করছে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিচার দাবি করেছেন স্থানীয়রা।

জানা গেছে, গত ১০ বছর ধরে পরিত্যাক্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছে উপজেলা পরিষদ কম্পাউন্ডের মধ্যে তৃতীয় শ্রেণীর কর্মচারী ক্লাব ঘরটি। ওই পরিত্যাক্ত ক্লাব ঘরের মধ্যে স্থানীয় মাদকসেবীরা প্রতিদিন সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত আড্ডা দেয় বলে স্থানীয় একটি সূত্রে নিশ্চিত করেছে। 
গতকাল রবিবার রাত ৮টার দিকে হঠাৎ ওই ঘরে আগুন দেখতে পেয়ে আমতলী ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেয়। তারা দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনলেও আগুনে পরিত্যাক্ত ক্লাব ঘরটি সম্পূর্ণ পুড়ে যায়। এতে অল্পের জন্য রক্ষা পায় উপজেলা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত, আইনজীবী সমিতি ভবন, উপজেলা সমাজসেবা অফিস, মহিলা বিষয়ক অফিস, পুরাতন মৎস্য ভবন, আনসার ভিডিপি অফিস, স্কাউট অফিস ও মুক্তিযোদ্ধা অফিস। 

ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের ধারণা পরিত্যাক্ত ভবনে বিদ্যুতের সংযোগ না থাকায় সিগারেট থেকে এ আগুন সূত্রপাত হয়ে থাকতে পারে।

স্থানীয়রা অভিযোগ করেন উপজেলা কম্পাউন্ডের মধ্যে এ পরিত্যাক্ত ক্লাব ঘরসহ অধিকাংশ পরিত্যাক্ত ভবনে স্থানীয় চিহ্নিত বেশ কয়েকজন মাদকসেবীরা সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত মাদকের আড্ডা বসায়। তাদের সিগারেট থেকেই আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় এনে শাস্তি দাবি করেছেন।

আমতলী উপজেলা ফায়ার সার্ভিস স্টেশন ইনচার্জ মো. তামিম হাওলাদার মুঠোফোনে বলেন, পরিত্যাক্ত ভবনে বিদ্যুৎ সংযোগ না থাকায় বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুন লাগার সম্ভাবনা নেই। ধারণা করা হচ্ছে জ্বলন্ত সিগারেট থেকেই আগুনের সূত্রপাত হয়েছে।

আমতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আসাদুজ্জামান বলেন, এ বিষয়ে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা