kalerkantho

মঙ্গলবার। ৫ মাঘ ১৪২৭। ১৯ জানুয়ারি ২০২১। ৫ জমাদিউস সানি ১৪৪২

তুচ্ছ ঘটনায় স্কুলছাত্রীর আত্মহনন

রাজাপুর (ঝালকাঠি) প্রতিনিধি   

৩০ নভেম্বর, ২০২০ ১৯:৪১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



তুচ্ছ ঘটনায় স্কুলছাত্রীর আত্মহনন

মাথায় শ্যাম্পু দেওয়া নিয়ে বড় ভাইয়ের সঙ্গে ছোট বোনের কথাকাটাকাটির রেশ ধরে অভিমানে সাওদা আক্তার এশা (১৪) নামে অষ্টম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। আজ সোমবার বিকালে ঝালকাঠির রাজাপুরের মধ্য মনোহপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এশা মনোহরপুর গ্রামের মো. জহিরুল ইসলামের মেয়ে ও রাজাপুর সরকারি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিলেন। পুলিশ আজ সন্ধ্যায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে মরদেহ উদ্ধার করেছে।

স্কুলছাত্রীর ফুপাতো ভাই মো. ওয়াহেদ জানায়, আজ দুপুরে এশা তার মাথায় বাটা মেহেদী পাতা লাগিয়েছিল। সেই মেহেদী লাগানো মাথায় শ্যাম্পু দিয়ে গোসল করতে চাইলে মা মেরী আক্তার ও বড় ভাই জুবায়ের এশাকে নিষেধ করেন। আজকে শুধু পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে বলেন। আগামী দিন শ্যাম্পু করলে মেহেদীর গুণ অক্ষুণ্ন থাকবে বলে জানান। কিন্তু এশার আজই মাথায় শ্যাম্পু করবে বলে জেদ করে। এ নিয়ে বড় ভাইয়ের সাথে এশার কথাকাটাকাটি হয়। পরে এশা তার রুমে গিয়ে দরজা বন্ধ করে নিজের ওড়না দিয়ে সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁস দেয়। এশাকে খেতে ডাকতে গেলে ফ্যানের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখা যায়। পরে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

রাজাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, স্কুলছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। আগামীকাল মঙ্গলবার সকালে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঝালকাঠি মর্গে পাঠানো হবে। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা