kalerkantho

শুক্রবার । ৮ মাঘ ১৪২৭। ২২ জানুয়ারি ২০২১। ৮ জমাদিউস সানি ১৪৪২

বদলে গেছে বোচাগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সেবার মান

বোচাগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি   

৩০ নভেম্বর, ২০২০ ১৮:২০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বদলে গেছে বোচাগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সেবার মান

দিনাজপুরের বোচাগঞ্জ উপজেলার প্রায় দুই লাখের বেশি মানুষের চিকিৎসাসেবার একমাত্র কেন্দ্র উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটির সার্বিক অবকাঠামোর সৌন্দর্য বৃদ্ধি, নিয়ম-শৃঙ্খলার উন্নতি ও সেবার মানে ব্যাপক পরিবর্তন এসেছে। বোচাগঞ্জ উপজেলার সেতাবগঞ্জ পৌর শহরের মধ্যেই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি। বর্তমান হাসপাতালের সেবা নিয়েও এলাকার মানুষ বেশ সন্তুষ্ট। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি দেখতে বেশ ঝকঝকে, তকতকে।

জানা যায়, ৫০ শয্যার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১০ জন চিকিৎসক ও একজন ডেন্টাল সার্জন এবং ২৩ জন সেবিকা নিয়ে রোগীদের নিয়মিত সেবা দিচ্ছে। উপজেলার ছয় ইউনিয়নে ২১টি কমিউনিটি ক্লিনিক এবং ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র ৫টি। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বহির্বিভাগে উপজেলার দূরদূরান্ত থেকে প্রতিদিন প্রায় কমবেশি ১৫০ জন রোগী সেবা নিতে আসে। প্রতিদিন জরুরি বিভাগে প্রায় ২০ থেকে ৩০ জন রোগী সেবা নিচ্ছে। প্রতিমাসে কমবেশি ৪০ থেকে ৫০ জন গর্ভবতী মায়ের নরমাল ডেলিভারি করা হয়। রোগীদের কোনো প্রকার হয়রানি শিকার হতে হয় না। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেটির পুরো এলাকা সিসি ক্যামেরা লাগানো হয়েছে। 

সরজমিনে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে রোগীরা এসে বহির্বিভাগে ৩ টাকা দিয়ে টিকিট কেটে চিকিৎসকদের কাছে সেবা নিচ্ছে। চিকিৎসরা রোগীদের সামনা-সামনি নিয়ে বেশ গুরুত্বের সহিত সেবা দিচ্ছে। 

করোনাভাইরাস রোগীদের নমুনা সংগ্রহ করার জন্য স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ক্যাম্পাসের ভেতরে অস্থায়ী টিনের ঘর করা হয়েছে। চিকিৎসকরা নিজেরাই রোগীদের কাছ থেকে করোনাভাইরাসের নমুনা সংগ্রহ করছে। বিগত কয়েক বছরের তুলনায় সেবার মান বৃদ্ধি পেয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবুল বাসার মো. সায়েদুজ্জামান বলেন, সেবা গ্রহণকারী ও সেবা প্রদানকারী সকলের সদিচ্ছা ও সম্মিলিত প্রচেষ্টাতেই সেবার মান পরিবর্তন এসেছে। এই ধারা অব্যাহত রাখতে সকলের সহযোগিতা ও পরামর্শ প্রয়োজন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা