kalerkantho

বুধবার । ১৩ মাঘ ১৪২৭। ২৭ জানুয়ারি ২০২১। ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

সীতাকুণ্ডে লরির নিচে চাপা পড়ে প্রবাসীর স্ত্রী নিহত

সীতাকুণ্ড (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি   

৩০ নভেম্বর, ২০২০ ১৬:০৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সীতাকুণ্ডে লরির নিচে চাপা পড়ে প্রবাসীর স্ত্রী নিহত

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে লরি চাপা পড়ে এক গৃহবধূ নিহত হয়েছেন। সোমবার দুপুর আনুমানিক সাড়ে ১২টায় বাড়বকুণ্ড ইউনিয়নের মান্দারীটোলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত গৃহবধূর নাম ফিরোজা বেগম (৩৫)। তিনি মান্দারীটোলা গ্রামের বাসিন্দা প্রবাসী আব্দুর রাজ্জাকের স্ত্রী।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দুপুরে বাজার করে রিকশাযোগে বাড়ি ফিরছিলেন আবদুর রাজ্জাকের স্ত্রী ফিরোজা বেগম। এ সময় পেছন দিক থেকে আসা একটি লরি (চট্ট মেট্টো ঢ ৬১-০৩২৬) ভাঙা সড়কের কারণে উল্টে গিয়ে তার রিকশাকে চাপা দিলে রিকশাসহ তিনি লরির নিচে পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান। ঘটনার পরপর লরিচালক গাড়ি ফেলে পালিয়ে যায়। দীর্ঘ প্রায় দুই ঘণ্টা লরির নিচে গৃহবধূর লাশটি পড়েছিল। এ সময় শত শত এলাকাবাসী সেখানে জড়ো হয়ে লরি চালকের শাস্তি দাবি জানিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

খবর পেয়ে সীতাকুণ্ড থানা পুলিশ সেখানে উপস্থিত হয়ে ক্ষুব্ধ জনতাকে শান্ত করে। ঘটনাস্থলে উপস্থিত সীতাকুণ্ড থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সুমন বণিক জানান, ওই রাস্তা দিয়ে অনেকগুলো গ্যাস কম্পানির গাড়ি যাতায়াত করে। কিন্তু তারা সবাই মিলেও সড়কটি সংস্কার না করায় সড়কের কারণে লরিটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দুর্ঘটনাকবলিত হলে প্রবাসীর স্ত্রী মারা যান। এ কারণে ক্ষুব্ধ গ্রামবাসী সড়ক বন্ধ করে বিক্ষোভ করে এবং সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থার দাবি জানায়। তিনি বলেন, এ বিষয়ে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা