kalerkantho

শনিবার । ৯ মাঘ ১৪২৭। ২৩ জানুয়ারি ২০২১। ৯ জমাদিউস সানি ১৪৪২

সরকারি অফিসে চুরি ঠেকাতে সড়ক বন্ধ!

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি   

২৯ নভেম্বর, ২০২০ ২১:৪৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সরকারি অফিসে চুরি ঠেকাতে সড়ক বন্ধ!

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলা পরিষদের বিভিন্ন সরকারি কার্যালয়ে সাম্প্রতিক সময়ে বেশ কয়েকটি চুরির ঘটনা ঘটে। আর এই চুরি ঠেকাতে উপজেলা পরিষদের ওপর দিয়ে যাওয়া সাধারণ মানুষের নিয়মিত চলাচলে সড়ক বন্ধ করে দিয়েছে প্রশাসন।

সড়ক খুলে দেওয়ার দাবিতে রবিবার ওই পাঁচ গ্রামের কয়েকশ মানুষ বিক্ষোভ করেছে। এ সময় তাঁরা উপজেলা পরিষদ চত্বরে প্রবেশ করতে চাইলে র‌্যাব ও পুলিশ বাঁধা দেয়। পরে কয়েকজন গিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) এর নিকট এ বিষয়ে একটি স্মারকলিপি দেয়।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, বছরের পর বছর ধরে ওই সড়ক ব্যবহার করে এলেও কোনো কারণ ছাড়াই দুই তিন আগে সেটি বন্ধ করে দেওয়া হয়। এতে অনেকটা পথ ঘুরে তাঁদেরকে সদরে আসতে হচ্ছে। যে কারণে উপজেলার দক্ষিণ আরিফাইল, নতুন হাবেলি, স্বল্পনোয়াগাঁও, টি ঘর, পানিশ্বর উত্তর গ্রামের ২০ হাজার মানুষকে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) ফারজানা প্রিয়াঙ্কা সাংবাদিকদেরকে জানান, গ্রামবাসী চলাচলের জন্য বিকল্প রাস্তা রয়েছে। সরকারি অফিসে চুরি বেড়ে যাওয়ায় নিরাপত্তার স্বার্থে এ রাস্তাটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। আর সবচেয়ে বড় কথা হলো উপজেলা পরিষদের উপর দিয়ে জন চলাচলের রাস্তা থাকতে পারে না।

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. রফিক উদ্দিন ঠাকুর বলেন, ‘১০ বছর আগে উপজেলা পরিষদের এক সভায় রাস্তাটি বন্ধের প্রস্তাবনা আনা হয়। সাম্প্রতিক সময়ে উপজেলা পরিষদ চত্বরের সরকারি অফিসে চুরি বেড়ে যাওয়ায় নিরাপত্তার স্বার্থে রাস্তাটি বন্ধ করে দেওয়া হয়। গ্রামবাসী চলাচলের একাধিক রাস্তা থাকায় এতে ক্ষুব্ধ হওয়ার কোনো কারণ দেখছি না।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা