kalerkantho

বুধবার । ১৩ মাঘ ১৪২৭। ২৭ জানুয়ারি ২০২১। ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

সোনারগাঁয়ে সাংবাদিককে হত্যাচেষ্টা, আটক ১

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি   

২৯ নভেম্বর, ২০২০ ০৫:০১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সোনারগাঁয়ে সাংবাদিককে হত্যাচেষ্টা, আটক ১

পূর্ব শত্রুতার জের ধরে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার চেঙ্গাকান্দি গ্রামে শাহ জালাল (৪০) নামে দৈনিক আমাদের নতুন সময়ের সাংবাদিককে শনিবার (২৮ নভেম্বর) স্থানীয় সন্ত্রাসীরা পিটিয়ে মারাত্মকভাবে আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ওই সাংবাদিকের পিতা বাদি হয়ে সোনারগাঁ থানায় একটি হত্যাচেষ্টার মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ অভিযান চালিয়ে এজহারভুক্ত একজন আসামিকে আটক করেছে।

মামলার এজহার থেকে জানা যায় উল্লেখ করা হয়, উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের চেঙ্গাকান্দি গ্রামের সিরাজুল মোল্লার সঙ্গে সাংবাদিক শাহ জালালের দীর্ঘ দিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। শনিবার সকালে তাদের মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়। এর জের ধরে সিরাজুল মোল্লার নেতৃত্বে তার ছেলে সোহাগ মিয়া, আব্দুস সামাদ, মোবারক হোসেন, জসিম উদ্দিন, রাফি, নাদিমসহ ৮/১০ জনের একদল বাহিনী দেশীয় অস্ত্র নিয়ে চেঙ্গাকান্দি বাজারে সাংবাদিক শাহজালালের চাউলের আড়তে প্রবেশ করে হামলা চালিয়ে পিটিয়ে ও কুপিয়ে মারাত্মক আহত করে। এ সময় হামলাকারীরা দোকানের ক্যাশে থাকা নগদ ৪ লাখ টাকা লুট করে নিয়ে যায়।

মামলার বাদি হাজী আলম চাঁন জানান, আমার ছেলে এলাকার মাদক ব্যবসা ও জমি দখলের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন যাবৎ প্রতিবাদ করে আসছে এবং পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ করার কারণে সন্ত্রাসীরা তাকে প্রাণে মেরে ফেলার জন্য পরিকল্পিতভাবে হামলা চালিয়েছে। হামলায় অংশ নেওয়া ৮ জনকে চিহ্নিত করে এবং বাকিদের চিনতে না পারায় অজ্ঞাতনামা আরো ৮/১০ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছি। প্রশাসনের কাছে এর সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি।

এ ব্যাপারে আহত শাহ জালালের স্ত্রী সালমা বেগম বলেন, পূর্ব শত্রুতার জের ধরেই সন্ত্রাসীরা আমার স্বামীকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করে।

এ ঘটনার স্থানীয় সাংবাদিকরা তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন এবং ঘটনার সঙ্গে জড়িত সকলের গ্রেপ্তার এবং দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় একটি হত্যাচেষ্টা মামলা গ্রহণ করা হয়েছে। সিরাজুল মোল্লা নামে এক সন্ত্রাসীকে আটক করা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা