kalerkantho

মঙ্গলবার। ৫ মাঘ ১৪২৭। ১৯ জানুয়ারি ২০২১। ৫ জমাদিউস সানি ১৪৪২

সারাজীবন মানুষের জন্য কাজ করে অপঘাতে মৃত্যু হলো সম্রাটের

ডামুড্যা (শরীয়তপুর) প্রতিনিধি   

২৮ নভেম্বর, ২০২০ ১৮:১৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সারাজীবন মানুষের জন্য কাজ করে অপঘাতে মৃত্যু হলো সম্রাটের

শরীয়তপুর জেলার ডামুড্যায় রাকিব হাসান সম্রাট (৩০) নামের এক যুবকের লাশ ডামুড্যা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পেছন থেকে উদ্ধার করেন ডামুড্যা থানা পুলিশ। শনিবার (২৮ নভেম্বর) সকালে লাশটি স্থানীয়রা হাসপাতালের পেছনে পড়ে থাকতে দেখে পুলিশ কে খবর দেয়। সম্রাট উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের মৃত সিরাজ মুন্সির ছেলে। তার বাবা-মা আগে মারা গিয়েছে। তাই সে নানা বাড়িতে থাকত এবং বিভিন্ন ক্লিনিকে কাজ করত। পাশাপাশি সে ব্লাড ট্রান্সফিউশন নামে একটি রক্তদান সংগঠনের কর্মী ছিল।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, রাকিব হোসেন সম্রাট এলাকায় স্বেচ্ছাসেবী কর্মী হিসেবে সবাই চেনে। সে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করে সব সময়। ছোটবেলায় মা-বাবা হারিয়ে নানির কাছে বড় হয়েছে। গতকাল বিকেল থেকে কোনো খবর ছিল না পরিবারের কাছে। সকালে হাসপাতালের কর্মচারী একটি লাশ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে শনাক্ত করে।

সম্রাটের নানি নারগিস বেগম বলেন, রাকিব আমার কাছে থাকে। ওর পাশাপাশি বিভিন্ন কাজ করে। বেশির ভাগ কাজই স্বেচ্ছাশ্রম দিত। আমাকে বলত দাদি আমি জীবনটা স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে কাজ করতে চাই।

ডামুড্যা থানার ওসি এমারত হোসেন বলেন, সকালে খবর পেয়ে লাশটি উদ্ধার করি। এখন ময়নাতদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট আসলে আমরা বলতে পারব মৃত্যু কিভাবে হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা