kalerkantho

মঙ্গলবার। ৫ মাঘ ১৪২৭। ১৯ জানুয়ারি ২০২১। ৫ জমাদিউস সানি ১৪৪২

শ্রীবরদীতে নিখোঁজের ৪ দিন পর জলাশয় থেকে পাহাড়াদারের লাশ উদ্ধার

শ্রীবরদী (শেরপুর) প্রতিনিধি   

২৮ নভেম্বর, ২০২০ ১১:৩০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শ্রীবরদীতে নিখোঁজের ৪ দিন পর জলাশয় থেকে পাহাড়াদারের লাশ উদ্ধার

শেরপুরের শ্রীবরদীতে নিখোঁজের ৪ দিন পর জলাশয় থেকে সোহেল ওরফে বাবু (৩০) নামে ইটভাটার এক পাহাড়াদারের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ শনিবার (২৮ নভেম্বর) সকাল ১০টার দিকে শ্রীবরদী সদর ইউনিয়নের নয়ানী শ্রীবরদী গ্রামের নিলক্ষিয়া সড়কের পাশে জলাশয় থেকে এ লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত বাবু ওই এলাকার গোলাপ আলীর ছেলে ও জেইউবি ইটভাটার পাহাড়াদার।  

নিহতের স্ত্রী ইয়াছমিন জানান, তার স্বামী দীর্ঘদিন ধরে একই গ্রামে জেইউবি ইটভাটার পাহারাড়ার হিসেবে কাজ করতেন। গত মঙ্গলবার সকালে বাড়ি থেকে বের হয়ে যান। রাতে বাড়ি ফিরে না আসায় তাকে খোঁজাখোজি করে না পেয়ে থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়। আজ শনিবার সকালে তার লাশ মেলে। 

নিহত বাবুর সহকর্মী সাইদুর রহমান জানান, ওইদিন সন্ধ্যায় ৭টার দিকে খাবার কথা বলে তিনি বাড়িতে যান। আর ফিরে আসেননি। ওই ইটভাটার কয়লা শ্রমিক শফিকুল ইসলাম বলেন, বাবু সবার সাথে মিলেমিশে কাজ করতেন। কারো সাথে তেমন কোনো বিরোধ ছিল না। আজ সকালে জানতে পারি তার লাশ পানিতে পড়ে আছে। 

তবে এ ব্যাপারে নিহত বাবুর মা খোদেজা বেগম বলেন, আমার ছেলেকে হত্যা করা হয়েছে। আমি এর বিচার চাই। 

পুলিশ জানায়, লাশের পরনে লুঙ্গি ও গায়ে জাম্পার ছিল। পানিতে থাকার কারণে লাশ অনেকটাই ফুলে গেছে। লাশে সুরতহাল সংগ্রহ করা হয়েছে। এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে থানা অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ রুহুল আমিন তালুকদার বলেন, জলাশয় থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্যে জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। তবে ঘটনাটি রহস্যজনক। এ ব্যাপারে থানায় একটি মামলার প্রক্রিয়া চলছে। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা