kalerkantho

সোমবার। ৪ মাঘ ১৪২৭। ১৮ জানুয়ারি ২০২১। ৪ জমাদিউস সানি ১৪৪২

মানুষ ও হাতির 'দ্বন্দ্ব' নিরসনে কর্মশালা শ্রীবরদীতে

শ্রীবরদী (শেরপুর) প্রতিনিধি   

২৮ নভেম্বর, ২০২০ ১১:০৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মানুষ ও হাতির 'দ্বন্দ্ব' নিরসনে কর্মশালা শ্রীবরদীতে

'হাতি একটি নিরিহ প্রাণী, আসুন একে রক্ষা করি'- এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে শেরপুরের শ্রীবরদীর বালিজুরি রেঞ্জ অফিস প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হয়েছে মানুষ ও হাতির দ্বন্দ্ব নিরসনে সচেতনতামূলক কর্মশালা। গতকাল শুক্রবার বিকালে বালিজুরি রেঞ্জ আয়োজিত কর্মশালায় সভাপতিত্ব করেন রানীশিমুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাসুদ রানা। এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বালিজুরি রেঞ্জ অফিসার রবিউল ইসলাম। 

রেঞ্জ অফিসার বলেন, বালিজুরি রেঞ্জে চারটি বিটের বনাঞ্চলে দীর্ঘদিন ধরে বন্যহাতির বিচরণ। এখানে বসবাস করে অনেক লোক। বন্যহাতি খাবারের সন্ধানে মাঝে মধ্যে লোকালয়ে আসে। এ সময় জানমালের ক্ষয়ক্ষতি করে। গ্রামবাসীরা মশাল জ্বালিয়ে ঢাকঢোল পিটিয়ে হাতি তাড়ানোর চেষ্টা করে। তবে বিভিন্ন কারণে হাতির মৃত্যুর ঘটনাও ঘটেছে। আবার হাতির হামলায় মানুষ আহত ও নিহতও হয়েছে। ফলে মানুষের সাথে হাতির দ্বন্দ্ব লেগেই আছে। এজন্য হাতির হাত থেকে নিজেদের ও হাতিকেও রক্ষার জন্যে সচেতনতা জরুরি। যাতে লোকালয়ে এলেও তাদের ওপর কেউ কোনো অত্যাচার না করে। যাতে হাতি নিরাপদে গভির জঙ্গলে ফিরে যেতে পারে। এতে হাতিও থাকবে। মানুষও থাকবে। এছাড়া হাতির হামলায় জানমালের ক্ষতি হলে সরকারিভাবে ক্ষতিপূরণ দেয়া হচ্ছে। এজন্য বনাঞ্চলে বসবাসকারীদের আরো সচেতন হওয়ার আহবান জানান তিনি। 

কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিলুফা আক্তার। বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন ময়মনসিংহ বন বিভাগের শেরপুর সহকারি বন সংরক্ষক প্রান্তোষ চন্দ্র রায়। এতে বক্তব্য রাখেন স্থানীয় বাসিন্দা ও বালিজুরি এলিফ্যান্ট রেসপন্স টিমের সভাপতি জাকির হোসেন জিকু, আদিবাসী নেতা লবকোশ মন্ডল ও বীরমুক্তিযোদ্ধা অহিরদ্দিন প্রমুখ। কর্মশালায় অংশগ্রহণ করেন এলিফ্যান্ট রেসপন্স টিমের সদস্য, সদস্যা ও বনাঞ্চলের বসবাসকারীরা। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা