kalerkantho

শনিবার । ৯ মাঘ ১৪২৭। ২৩ জানুয়ারি ২০২১। ৯ জমাদিউস সানি ১৪৪২

'ঈশ্বর বাঁচালে কেউ মারতে পারে না'

বেতাগী (বরগুনা) প্রতিনিধি   

২৬ নভেম্বর, ২০২০ ১১:২১ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



'ঈশ্বর বাঁচালে কেউ মারতে পারে না'

অলৌকিকভাবে বেঁচে যাওয়া সেই সদ্যজাত গরুর বাছুরটি। ছবি: কালের কণ্ঠ

সবাই ব্যস্ত। কেউ আগুন ধরাচ্ছে। কেউ আগুন জ্বালানোর খড়কুটো আনছে। কেউ আবার গাভির সদ্য প্রসবকৃত বাছুরটিকে আগুনে সেঁক দিচ্ছে। কনকনে শীতের মধ্যে কেউ কেউ আগুন পোহাচ্ছে আর দাঁড়িয়ে থেকে এসব দৃশ্য উপভোগ করছে। পুরো বাড়ির সবাই ব্যস্ত বাছুরটিকে নিয়ে।

এ গল্পের রহস্য হলো, জানা গেছে বরগুনার বেতাগী পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের পুলিন বিহারী ঢালী বাড়িতে গত রাতে একটি গাভি বাচ্চা প্রসব করে। এরপর ওই বাচ্চাটি গোয়ালঘরের কাছে ডোবার পানিতে পড়ে যায়। ৬ ঘণ্টারও বেশি সময় পানিতে ছিল। বাড়ির লোকজন সকালে অনেক খোজাঁখুঁজির পর পানি থেকে উঠিয়ে আনে। প্রথমে তারা মনে করেছিল, বাছুরটি মারা গেছে। এরপর বাড়ির লোকজন আগুনে সেঁকা দেওয়ার পর জীবিত রয়েছে তা বুঝতে পারে।

এ সময় ওই গাভির মালিক পুলিন বিহারী ঢালী বলেন, 'রাখে ঈশ্বর, মারে কে? ঈশ্বর বাঁচালে কেউ মারতে পারে না। ৬ ঘণ্টা পানির মধ্যে ডুবে থাকার পরও এ বাছুরটির বেঁচে থাকা এটা তারই প্রমাণ।' 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা