kalerkantho

মঙ্গলবার। ৫ মাঘ ১৪২৭। ১৯ জানুয়ারি ২০২১। ৫ জমাদিউস সানি ১৪৪২

পান জুমের গাছ কর্তন, ১৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা

কুলাউড়া (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি   

২৫ নভেম্বর, ২০২০ ১৯:১০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পান জুমের গাছ কর্তন, ১৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা

মৌলভীবাজারের কুলাউড়ার কর্মধা ইউনিয়নের নুনছড়া পুঞ্জিতে বসবাসকারী ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠী খাসিয়া সম্প্রদায়ের রোপণকৃত বেশ কয়েকটি পান জুমের গাছ কর্তন করার অভিযোগে ১৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুঞ্জির মন্ত্রী (হেডম্যান) ববরিন খাসিয়া বাদী হয়ে অভিযুক্ত লিটন মিয়াকে প্রধান আসামি করে মামলা করেন।

মামলার আসামিরা হলেন- কর্মধা ইউনিয়নের নলডরী গ্রামের লিটন মিয়া, পূর্ব ফটিগুলি গ্রামের রেনু মিয়া, এলাইছ মিয়া, ফজলু মিয়া, জুনাব মিয়া, আমির আলী, রুপালী মিয়া, নলডরী গ্রামের জাবেদ মিয়া, দুলন মিয়া, তোতা মিয়া, দুদু মিয়া, ফটিগুলি গ্রামের ফরজান মিয়া, পশ্চিম ফটিগুলি গ্রামের সেলিম আহমদ, সেলিম মিয়া (২)।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২১ নভেম্বর শনিবার বিকেল ৩টায় কর্মধা ইউনিয়নের নলডরী গ্রামের লিটন মিয়ার নেতৃত্বে ২০-২৫ জন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ববরিন খাসিয়ার মালিকানাধীন পানের জুমে প্রায় ৫০০ গাছ কর্তন করে। এতে প্রায় ৮ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। এ ছাড়া আরো ২৫-৩০টি পান জুমের পান গাছ কর্তন করা হয়েছে বলে খাসিয়াদের অভিযোগ।

অভিযুক্ত লিটন মিয়া বলেন, আমাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র চালানো হচ্ছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও কুলাউড়া থানার উপপরিদর্শক (তদন্ত) মো. আমিনুল ইসলাম মুঠোফোনে বলেন, এ ঘটনায় থানায় খাসিয়াদের পক্ষ থেকে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। সরেজমিন পুঞ্জিতে যাওয়ার পর তদন্তে পান গাছ কাটার সত্যতা পাওয়া গেছে। এ ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেপ্তার করতে পুলিশ তৎপর রয়েছে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা