kalerkantho

শনিবার । ৯ মাঘ ১৪২৭। ২৩ জানুয়ারি ২০২১। ৯ জমাদিউস সানি ১৪৪২

গুজব ছড়িয়ে পুড়িয়ে হত্যা : আরো একজন গ্রেপ্তার

অনলাইন ডেস্ক   

২৫ নভেম্বর, ২০২০ ১৩:৫৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গুজব ছড়িয়ে পুড়িয়ে হত্যা : আরো একজন গ্রেপ্তার

লালমনিরহাটের বুড়িমারীতে গুজব ছড়িয়ে আবু ইউনুস মো. শহীদুন্নবী জুয়েলকে পিটিয়ে ও পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় আরো একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তার ওই ব্যক্তির নাম মো. ফরিদুল ইসলাম (৩৭)। তিনি বুড়িমারী উফারমারা নাটারবাড়ি গ্রামের মো. ফজলুল হক ওরফে ঘোটোর ছেলে। এ নিয়ে ওই ঘটনায় মোট ৩৯ জনকে গ্রেপ্তার করা হলো।

আজ বুধবার (২৫ নভেম্বর) সকাল ১১টার দিকে লালমনিরহাট জেলা ডিবি পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওমর ফারুক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ওমর ফারুক বলেন, গতকাল মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) রাতে ফরিদুল ইসলামকে বুড়িমারীর উফারমারা নাটারবাড়ি গ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আজ বুধবার দুপুরে তাকে আদালতে হাজির করে তিন দিনের রিমান্ড চাওয়া হবে।

গ্রেপ্তার ৩৯ জনের মধ্যে ১৩ জনের বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ড হয়েছে।

সর্বশেষ গত রবিবার (২২ নভেম্বর) দুপুরে গ্রেপ্তার রাসেল ইসলাম রাজ ওরফে বিশুর (২২) পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত-৩ এর বিচারক ফেরদৌসী বেগম।

গত ২৯ অক্টোবর  বিকেলে লালমনিরহাটের বুড়িমারী কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে কুরআন অবমাননার গুজব ছড়িয়ে আবু ইউনুস মো. শহীদুন্নবী জুয়েলকে পিটিয়ে ও পুড়িয়ে হত্যা করা হয়।

ওই ঘটনায় পাটগ্রাম থানায় নিহত জুয়েলের চাচাত ভাই সাইফুল আলম, বুড়িমারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু সাঈদ নেওয়াজ নিশাত ও পাটগ্রাম থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শাহজাহান আলী বাদী হয়ে পৃথক তিনটি মামলা দায়ের করেন।

ঘটনা তদন্তে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের দুই সদস্যের তদন্ত টিম ও জেলা প্রশাসকের গঠিত তিন সদস্যের তদন্ত টিমসহ পুলিশের সিআইডি এবং ডিবি পুলিশের টিম ঘটনায় জড়িতদের তথ্য উদঘাটনে কাজ করছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা