kalerkantho

বুধবার। ৬ মাঘ ১৪২৭। ২০ জানুয়ারি ২০২১। ৬ জমাদিউস সানি ১৪৪২

কক্সবাজারে জেলা প্রশাসকের উদ্যোগে এবার হচ্ছে শিশু হাসপাতাল

বিশেষ প্রতিনিধি, কক্সবাজার   

২৩ নভেম্বর, ২০২০ ২২:৫৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কক্সবাজারে জেলা প্রশাসকের উদ্যোগে এবার হচ্ছে শিশু হাসপাতাল

কক্সবাজার জেলা শহরে একটি শিশু হাসপাতাল স্থাপনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। শিশুদের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করণের জন্য শিশুদের বিশেষায়িত এই হাসপাতালটি নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন ব্যক্তিগত উদ্যোগ নিয়েছেন হাসপাতালটি স্থাপনের জন্য। সম্পূর্ণ বেসরকারি সহযোগিতায় নতুন একটি শিশু হাসপাতাল স্থাপন বিষয়ে সোমবার অনুষ্ঠিত এক সভায় সর্বসম্মতিক্রমে এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। 

কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন উদ্যোগী হয়ে শিশু হাসপাতালটি স্থাপনের জন্য এ সভাটি আহবান করেন। জেলা প্রশাসক কক্সবাজারে যোগদানের পর গত আড়াই বছরে বিশেষ শিশুদের (অটিস্টিক) জন্য অরুণোদয় নামের একটি বিশেষায়িত স্কুল স্থাপন করেন। সেই স্কুলটিতে ইতিমধ্যে কয়েক শ বিশেষ শিশু লেখাপড়া ও খেলাধুলাসহ নানাবিধ উন্নত সুযোগ পেয়েছেন। 

এর আগে ডিসি কলেজ নামের একটি ইন্টারমিডিয়েট কলেজ স্থাপন করে তিনি মানসন্মত পড়ালেখার উচ্চ মাধ্যমিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে একটি প্রতিযোগীতার কাতারে নিয়ে এসেছেন। জেলা প্রশাসকের একের পর এক সৃজনশীল গঠনমূলক কর্মকাণ্ড ছাড়াও তাঁর মানবিক কাজের জন্য ইতিমধ্যে জেলাব্যাপী ব্যাপক আলোচনায় আসেন তিনি।

সর্বশেষ জেলা প্রশাসক শিশুদের জন্য এবার একটি বিশেষায়িত হাসপাতাল স্থাপন কাজে হাত দিলেন। এ উপলক্ষে জেলা প্রশাসনের শহীদ এটিএম জাফর আলম সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় সিদ্ধান্ত হয় যে, সাগর পাড়ের কক্সবাজার ডায়াবেটিক হাসপাতাল ও শিশু পার্কের পার্শ্বেই শিশু হাসপাতালটি স্থাপন করা হবে।

সভায় কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক ও কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমান, বীর মুক্তিযোদ্ধা কামাল হোসেন চৌধুরী ও নুরুল আবছার, সাংবাদিক আবু তাহের, অ্যাডভোকেট আ জ ম মঈনুদ্দিনসহ স্থানীয় রাজনীতিক, আইনজীবী, সাংবাদিকসহ নানা পেশাজীবী সদস্যরা বক্তব্য রাখেন।

সভায় বক্তারা জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন একজন মানবিক গুণাবলী সম্পন্ন মানুষ বলে উল্লেখ করে বলেন, ‘কক্সবাজারবাসী ইতিমধ্যে না চাইতেই জেলা প্রশাসকের ব্যক্তিগত উদ্যোগের কারণে অনেক কিছুই পেয়ে গেছেন।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা