kalerkantho

শনিবার। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ৫ ডিসেম্বর ২০২০। ১৯ রবিউস সানি ১৪৪২

দেশের তথ্য দেশে সংরক্ষণ করতে নতুন আইন হচ্ছে : পলক

যশোর প্রতিনিধি   

২৯ অক্টোবর, ২০২০ ১৬:৩৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দেশের তথ্য দেশে সংরক্ষণ করতে নতুন আইন হচ্ছে : পলক

তথ্য, যোগাযোগ ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, আমাদের দেশের তথ্য দেশে সংরক্ষণ করার জন্য মাননীয় উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের নির্দেশনায় বাংলাদেশে একটি আইন করতে যাচ্ছি। যে আইনটি হবে আমাদের ন্যাশনাল ডেটা প্রাইভেসি প্রটেকশন অ্যান্ড লোকালাইজেশন ল।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে যশোর বিজিবি রিজিয়ন সদর দপ্তরের আওতাধীন যশোর ব্যাটালিয়ন (৪৯ বিজিবি) এ একটি অত্যাধুনিক ডাটা সেন্টার ডিজাস্টার রিকভারি সাইট উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের কোন ব্যাংক বাংলাদেশের কোন এডুকেশন এবং হেলথ অর্গানাইজেশন যাতে দেশের বাইরে দেশের নাগরিকের তথ্য প্রেরণ করতে না পারে তার জন্য ভবিষ্যতে ডেটা সেন্টারের প্রয়োজনীতা আরো বাড়বে যখন এই আইনটা হবে।  

তথ্য যোগযোগ ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এ সাইট উদ্বোধন করেন। এ সময় বিজিবি মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. সাফিনুল ইসলামসহ বিজিবির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, আইটি প্রতিষ্ঠান এবং ব্যাংক ও ফিনান্সিয়াল প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। 

প্রতিমন্ত্রী পলক আরো বলেন, আজকে আমাদের জন্য একটি অত্যন্ত আনন্দের দিন। বর্ডারগার্ড বাংলাদেশ সীমান্ত ডিজাস্টার রিকভারি সাইট আজকে যশোরে আমরা উদ্বোধন করতে পারলাম। ডেটা সেন্টার এমন একটি প্রয়োজনীয় প্রযুক্তিগত অবকাঠামো যে ডেটা সেন্টারের মাধ্যমে আমরা আমাদের ব্যাংকিং কার্যক্রম চলমান রাখতে পারছি। যে ডেটা সেন্টার ছাড়া আমরা আমাদের মিডিয়ার যত কার্যক্রম চলছে যত ধরনের তথ্য উপাত্ত আছে সেগুলোকে আমরা যদি কোথাও সংরক্ষণ করতে চাই তাহলে সেটার একটা সংরক্ষণ করার প্রযুক্তিগত অবকাঠামো প্রয়োজন।

যেকোনো দুর্যোগ বা দুর্ঘটনায় ডাটা সেন্টারের সকল ডাটা ডিজাস্টার রিকভারি সাইট এ অধিক নিরাপত্তার সাথে সুরক্ষিত থাকবে। এ ছাড়া ডাটা সেন্টারে রক্ষিত সীমান্ত ব্যাংকের ডাটা সংরক্ষণ ছাড়াও বাংলাদেশের ডিজিটাল ডাটা নিরাপত্তায় যেকোনো সংস্থার জন্য অগ্রণী ভূমিকা রাখবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা