kalerkantho

শনিবার । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৮ নভেম্বর ২০২০। ১২ রবিউস সানি ১৪৪২

৮ মাস পর খুলছে সাতছড়ি জাতীয় উদ্যান

মাধবপুর (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি    

২৯ অক্টোবর, ২০২০ ১৪:২২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



৮ মাস পর খুলছে সাতছড়ি জাতীয় উদ্যান

আগামী ১ নভেম্বর খুলে দেওয়া হচ্ছে হবিগঞ্জে চুনারুঘাটের সাতছড়ি জাতীয় উদ্যান। করোনা সংক্রমণের বিস্তারের কারণে আট মাস বন্ধ থাকার পর ‌ওইদিন থেকে উদ্যানটিতে প্রবেশের সুযোগ পাবেন পর্যটকরা।

বুধবার (২৮ অক্টোবর) রাতে চুনারুঘাট উপজেলা নির্বাহী নির্বাহী (ইউএনও) সত্যজিত রায় দাশ এ তথ্য জানান।

করোনা পরিস্থিতির কারণে গত ১৯ মার্চ এ পর্যটন স্পটটি বন্ধ ঘোষণা করা হয়। এরপর থেকে গত আট মাস ধরে পর্যটক না আসায় বনটি এর প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য পুরোপুরিভাবে ফিরে পেয়েছে বলেও তিনি জানিয়েছেন।

সাতছড়ি রেঞ্জ অফিসার মোতালেব জানান, খোলা থাকলে সাতছড়িতে প্রতিদিন আড়াই থেকে পাঁচ হাজার পর্যটক আসেন। বয়স্কদের টিকিট বিক্রি হতো ৩০ টাকা এবং অপ্রাপ্ত বয়স্কদের জন্য ২৫ টাকা।

জানা গেছে ১৯১২ সালে প্রায় ১০ হাজার একর দুর্গম পাহাড়ি জমি নিয়ে গঠিত রঘুনন্দন হিলস রিজার্ভই কালের পরিক্রমায় আজকের সাতছড়ি উদ্যান। যদিও জাতীয় উদ্যান হওয়ার ইতিহাস বেশিদিনের নয়। ২০০৫ সালে ৬০০ একর জমিতে জাতীয় উদ্যান করা হয়। এ উদ্যানের ভেতর রয়েছে অন্তত ২৪টি আদিবাসী পরিবারের বসবাস, রয়েছে বন বিভাগের লোকজন।

উদ্যানে পর্যটকদের জন্য রয়েছে প্রজাপতি বাগান, ওয়াচ টাওয়ার, হাঁটার ট্রেইল, খাবার হোটেল, রেস্ট হাউস, মসজিদ, রাত যাপনে স্টুডেন্ট ডরমিটরি। ‌এখানে দুই শতাধিক প্রজাতির উদ্ভিদের মধ্যে শাল, সেগুন, আগর, গর্জন, চাপালিশ, পাম, মেহগনি, কৃষ্ণচূড়া, ডুমুর, জাম, জামরুল, সিধা জারুল, আওয়াল, মালেকাস, আকাশমনি, বাঁশ ও বেত উল্লেখযোগ্য।

১৯৭ প্রজাতির জীব-জন্তুর মধ্যে প্রায় ২৪ প্রজাতির স্তন্যপায়ী, ১৮ প্রজাতির সরীসৃপ, ছয় প্রজাতির উভচর। আরো আছে প্রায় ২০০ প্রজাতির পাখি। রয়েছে লজ্জাবতী বানর, উল্লুক, চশমা পরা হনুমান, শিয়াল, কুলু বানর, মেছো বাঘ, মায়া হরিণের বিচরণ। সরীসৃপের মধ্যে রয়েছে কয়েক প্রজাতির সাপ। কাও ধনেশ, বন মোরগ, লাল মাথা ট্রগন, কাঠঠোকরা, ময়না, ভিমরাজ, শ্যামা, ঝুটিপাঙ্গা, শালিক, হলদে পাখি, টিয়া প্রভৃতির আবাসস্থল এই উদ্যান।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা