kalerkantho

বুধবার । ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৫ নভেম্বর ২০২০। ৯ রবিউস সানি ১৪৪২

ধর্ষক ছাত্রলীগ নেতার বিচার দাবিতে রায়পুরায় ইশার মানববন্ধন

রায়পুরা(নরসিংদী)প্রতিনিধি   

২৬ অক্টোবর, ২০২০ ১৩:০৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ধর্ষক ছাত্রলীগ নেতার বিচার দাবিতে রায়পুরায় ইশার মানববন্ধন

ছবি: ছাত্রলীগ নেতার বিচার দাবিতে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলনের মানবন্ধন।

নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আসাদুল হক চৌধুরী শাকিল কর্তৃক তরুণী ধর্ষণ, সারাদেশে ঘটে যাওয়া নারী নির্যাতন ও ধর্ষণের ঘটনায় জড়িতদের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন (ইশা)।

আজ সোমবার (২৬ অক্টোবর) সকাল ১০টায় রায়পুরা উপজেলা পরিষদের সামনের মানববন্ধন করে চরমোনাই পীরের দল ইসলামি আন্দোলন বাংলাদেশের ছাত্র সংগঠন ইশা ছাত্র আন্দোলন।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ধর্ষকদের যারা লালন পালন করে আসছে তাদেরকেও আইনের আওতায় এনে বিচার করতে হবে। ছাত্রলীগ নেতা শাকিলকে দ্রুত গ্রেপ্তার ও সর্ব্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানিয়েছেন তারা।

রায়পুরা উপজেলা ইশা ছাত্র আন্দোলনের সভাপতি এইচ এম নূরে আলমের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন রায়পুরা উপজেলা ইসলামী আন্দোলনের সভাপতি হাজি সামসুল হক, সাধারণত সম্পাদক হাজি আব্দুল মতিন শিপন মোল্লা, নরসিংদী জেলা ইশা ছাত্র আন্দোলনের সহ সভাপতি হাফেজ মাহমুদুল হাসান, উপজেলা যুব আন্দোলনের সভাপতি হাফেজ মাও সাজেদুল্লাহ, সাধারণত সম্পাদক আমীনুল ইসলাম শামীম প্রমুখ।

উল্লেখ, গত ছয় মাস পূর্বে ওই তরুণীর সঙ্গে ছাত্রলীগ নেতা শাকিলের পরিচয় হয়। তারপর দুই জনের মধ্যে প্রেমের সর্ম্পক গড়ে ওঠে। এক পর্যায়ে গত ২২ অক্টোবর বিকেলে ওই তরুণীকে বিয়ের কথা বলে রাজিউদ্দিন আহমেদ রাজু অডিটোরিয়ামে ডেকে আনা হয়। তারপর কাজী ডেকে বিয়ে করার কথা বলে রাত না হওয়া পর্যন্ত ভবনের কেয়ারটেকার সুমনের রুমে ওই তরুণীকে বসিয়ে রাখে শাকিল। পরে রাতে স্পিড ক্যানে ঘুমের ওষুধ মিশিয়ে খাইয়ে তরুণীকে ধর্ষণ করেন। ওই তরুণী বাঁচার জন্য চিৎকার দিলে মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে রুমে আটক করে রাখে। তারপর ঘটনা জানাজানি হলে ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন শাকিল। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ওই তরুণীকে উদ্ধার করে থানায় নেয়।

এই ঘটনার পরদিন (২৩ অক্টোবর) ভুক্তভোগী তরুণী বাদী হয়ে ছাত্রলীগ সভাপতি শাকিল ও তার সহযোগী অডিটোরিয়ামের কেয়ারটেকার সুমনের বিরুদ্ধে রায়পুরা থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। এরপর সন্ধ্যায় পুলিশ সুমনকে আটক করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা