kalerkantho

বুধবার । ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৫ নভেম্বর ২০২০। ৯ রবিউস সানি ১৪৪২

নিশ্চুপ দাঁড়িয়ে থাকা শিশুটি নানির কাছে, ঘাতক অনিক কারাগারে

অনলাইন ডেস্ক   

২৬ অক্টোবর, ২০২০ ০৮:৫২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নিশ্চুপ দাঁড়িয়ে থাকা শিশুটি নানির কাছে, ঘাতক অনিক কারাগারে

ছবি: মায়ের মরদেহের পাশে নিশ্চুপ দাঁড়িয়ে ছিল ছোট্ট শিশু তন্বী।

হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলায় জোনাকী আক্তারের মরদেহ রাস্তায় ফেলে পালানোর সময় আটক অনিক পান্ডেকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। নিহত জোনাকীর মা হেনা আক্তার বাদী হয়ে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

রবিবার (২৫ অক্টোবর) দুপুরে বানিয়াচং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. এমরান হোসেন মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। একই দিন অনিককে আদালতে সোপর্দ করলে বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

ওসি বলেন, জোনাকীর মরদেহের গলায় আঘাতের দুটি চিহ্ন রয়েছে। কিন্তু ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পাওয়ার আগ পর্যন্ত মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছে না। তবে অনিককে ৭ দিনের রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে আবেদন করা হবে।

অন্যদিকে মায়ের মরদেহের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় উদ্ধার হওয়া শিশু তন্বী এখন তার নানি ও হত্যা মামলার বাদী হেনা আক্তারের কাছে রয়েছে।

পুলিশ জানায়, গৃহবধূ জোনাকী বানিয়াচং উপজেলার রঘু চৌধুরীপাড়ার অপু মিয়ার স্ত্রী ও আবু মিয়ার মেয়ে। তিনি দুই সন্তানের জননী। প্রায় এক মাস আগে মেয়ে তন্বীকে সঙ্গে নিয়ে স্বামী ও অপর সন্তানকে ফেলে জোনাকী অনিক নামে এক ছেলের সঙ্গে পালিয়ে নেত্রকোনা চলে যান।

গত শনিবার অনিক গাড়িতে করে জোনাকীর মরদেহ নিয়ে বানিয়াচং যাচ্ছিলেন। পথে শুঁটকি ব্রিজ এলাকায় অটোরিকশা থামালে স্থানীয়রা গাড়িতে মরদেহ দেখে তাকে তাড়া করেন। পরে মরদেহ ও শিশু তন্বীকে রাস্তায় ফেলে তিনি হাওর দিয়ে পালানোর চেষ্টা করেন। তখন এলাকার লোকজন তাকে আটক করে থানায় খবর দেন। অনিক বানিয়াচং উপজেলার কাষ্টগর গ্রামের নিহাল পান্ডের ছেলে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা