kalerkantho

শুক্রবার। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ৪ ডিসেম্বর ২০২০। ১৮ রবিউস সানি ১৪৪২

কালিয়াকৈরে পৈশাচিক হত্যার শিকার নারী

কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি   

২৫ অক্টোবর, ২০২০ ১৮:৫৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কালিয়াকৈরে পৈশাচিক হত্যার শিকার নারী

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে জেসমিন আক্তার নামে এক নারীকে ছুরিকাঘাতে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। রবিবার দুপুরে পুলিশ নিহত ওই নারীর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। 

নিহত জেসমিন আক্তার (২৩) দিনাজপুরের পারবর্তীপুর থানার পাঠানপাড়া গ্রামের সুলতান আহম্মদের মেয়ে। সে কালিয়াকৈরের পূর্বচান্দরা এলাকার রিপন রেহানার বাড়ির ভাড়াটিয়া বলে জানা গেছে।

নিহতের পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, জেসমিন আক্তারের সঙ্গে তার স্বামী ওমর ফারুকের ডিভোর্স হয় কয়েকমাস আগে। এ নিয়ে দুই পরিবারের মধ্যে নানা দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। গত শনিবার রাতের কোনো একসময় জেসমিন আক্তার (২৩) নামের ওই নারীকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে লাশ উপজেলার সফিপুর বাজার এলাকায় ভুট্টো মিয়ার বাড়ির পেছনের একটি জঙ্গলে ফেলে রেখে যায়। আজ রবিবার সকালে এলাকাবাসী নিহতের লাশ দেখে পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ দুপুরে ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। পুলিশের প্রাথমিক ধারণা, জেসমিন আক্তারকে সাবেক স্বামী ওমর ফারুক হত্যা করে লাশ ওই স্থানে ফেলে রেখে যেতে পারে।

নিহতের বুকের ডানপাশে নিচে ২টি এবং তলপেটে ৩টি ধারালো চাকুর আঘাতের চিহৃ রয়েছে। এ ছাড়া নিহতের ডান চোখ উপড়ে ফেলা হয়। এ ঘটনায় কালিয়াকৈর থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। 

কালিয়াকৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনোয়ার হোসেন চৌধুরী বলেন, কে বা কারা ওই নারীকে চুরিকাঘাতে হত্যার পর লাশ ফেলে যায়। লাশ উদ্ধার করা ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। হত্যার সঠিক কারণ এখনো জানা যায়নি। মামলার প্রস্তুতি চলছে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা