kalerkantho

বুধবার । ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৫ নভেম্বর ২০২০। ৯ রবিউস সানি ১৪৪২

চার জেলায় চার অপমৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক   

২৫ অক্টোবর, ২০২০ ১৬:০১ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



চার জেলায় চার অপমৃত্যু

পীরগাছায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে যুবকের মৃত্যু
রংপুরের পীরগাছায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে জাহাঙ্গীর আলম(২২) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। তিনি উপজেলার কান্দি ইউনিয়নের তালুক কান্দি গ্রামের জয়নাল আবেদীনের ছেলে। আজ রবিবার সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

স্বজন ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, জাহাঙ্গীর আলম রবিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে নিজ ঘরে চার্জার লাইট চার্জে দেওয়ার সময় হঠাৎ বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। কান্দি ইউপি চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম খান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

শাহজাদপুরে নারীর অস্বাভাবিক মৃত্যু
সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে স্বামী পরিত্যক্তা ফরিদার (৩৫) অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে। জানা গেছে, সে উপজেলার হাবিবুল্লাহনগর ইউনিয়নের নগরডালা গ্রামের মৃত বাবর আলীর মেয়ে। কিছুদিন ধরে একই ইউনিয়নের হামলাকোলা গ্রামের তাঁত ব্যবসায়ী সওদাগরের পুত্র মজিদ (৩০) এর সাথে ফরিদার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গত শনিবার দূপুরে বিয়েরে দাবি নিয়ে এক সন্তানের জননী ফরিদা মজিদের বাড়িতে ওঠে।

হাবিবুল্লাহনগর ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বর বাছেদ আলী জানান, মেয়েটির চাচাতো ভাই আব্দুল জলিল তাকে জানান, বিয়ের দাবিতে শনিবার বিকেল ৩টায় তার চাচাতো বোন ফরিদা মজিদের বাড়িতে গেলে মজিদ ও তার পরিবারের লোকজন ফরিদাকে বেধড়ক পিটিয়ে ফরিদার বাড়ির পাশে রেখে যায়। এ অবস্থায় ফরিদাকে উদ্ধার করে সন্ধ্যায় উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় এ দিন সন্ধ্য ৭টায় মারা যায়। 

এদিকে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম খান জানান, শনিবার সন্ধ্যায় ফরিদা (২৫) উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। সন্ধ্যা ৭টা দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ফরিদা মারা যায়। তার পাকস্থরিতে বিষ পাওয়া গেছে। 

শাহজাদপুর থানার ওসি শাহিদ মাহমুদ খান জানান, ময়নাতদন্তের পর প্রকৃত কারণ জানা যাবে। তবে মামলার প্রস্তুতি চলছে। রবিবার সকালে ফরিদার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যার বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

গাজীপুরে দিনমজুরকে কুপিয়ে খুন 
গাজীপুর মহানগরীর পূবাইলের হায়দারাবাদ এলাকায় এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। শনিবার রাত ১২টার দিকে পুলিশ হায়দারাবাদের আক্কাছ মার্কেটসংলগ্ন হাজিপাড়ার ঝিলের পাশে তার রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার করে।

নিহত মোফজ্জল হোসেন ওরফে তোফাজ্জল (৪০) জামালপুরের আব্দুল মজিদের ছেলে। হায়দারাবাদ এলাকায় ভাড়া থেকে তিনি দিনমজুরের কাজ করতেন।

পূবাইল থানার ওসি মো. নাজমুল হক ভূইয়া জানান, শুক্রবার রাতে মোফাজ্জল ভাড়া বাসা থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হন। স্বজনরা বিভিন্ন স্থানে খোজাঁখুঁজি করেও তার সন্ধান পাননি। শনিবার রাত ৮টার দিকে হাজিপাড়া এলাকার ঝিলের পাশে তার লাশ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। রাত ১২টায় দিকে লাশ উদ্ধার করে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়। 

ওসি আরো বলেন, নিহতের ঘাড়ের পেছনে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। কেন কারা তাকে হত্যা করেছে তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। 

যশোরে ভৈরব নদে ব্যবসায়ীর গলাকাটা লাশ
যশোর সদর উপজেলার চুড়ামনকাটি এলাকায় ভৈরব নদ থেকে গোলাম মোস্তফা (৫৫) নামে এক কাঠ ব্যবসায়ীর গলা কাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ রবিবার দুপুর ১২টার দিকে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। নিহত গোলাম মোস্তফা সদর উপজেলার বাগডাঙ্গা গ্রামের সরদারপাড়ার পাচু মন্ডলের ছেলে। পাওনা টাকা নিয়ে এ হত্যার ঘটনা ঘটতে পারে বলে ধারণা করছে পুলিশ।

নিহতের নাতি ওয়ালিয়ার রহমান বলেন, দাদা কাঠ ব্যবসায়ী। তিনি কাজ শেষে রাত ১০টার দিকে বাড়ি ফেরেন। শনিবার আসরের নামাজের পরে তিনি বাড়ি থেকে বের হন। রাত ১২টা নাগাদ বাড়িতে না ফেরায় আমরা খোঁজখবর নিতে থাকি। তার মোবাইলফোন বন্ধ ছিল। পরে আজ সকালে খবর পাই, দাদার গলাকাটা লাশ ভৈরব নদে পড়ে আছে।

পুলিশ সুপার মোহাম্মাদ আশরাফ হোসেন সাংবাদিকদের জানান, তার সাথে অনেকের ব্যবসায়িক লেনদেন ছিল। পাওনা টাকা নিয়ে এ হত্যার ঘটনা ঘটতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। জড়িতদের ধরতে অভিযান চলছে এবং মামলা প্রক্রিয়াধীন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা