kalerkantho

মঙ্গলবার । ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৪ নভেম্বর ২০২০। ৮ রবিউস সানি ১৪৪২

চেয়ারম্যানের নির্দেশেই কুপিয়ে হত্যা করা হয় শুভ্রকে

আঞ্চলিক প্রতিনিধি,ময়মনসিংহ   

২৪ অক্টোবর, ২০২০ ২০:৩১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চেয়ারম্যানের নির্দেশেই কুপিয়ে হত্যা করা হয় শুভ্রকে

গৌরীপুরে স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমান শুভ্র হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে সরাসরি জড়িত মো. খাইরুল ইসলামকে (৩৫) গ্রেপ্তার করেছে ডিবি পুলিশ। আজ শনিবার বিকেলে আদালতে হাজির করলে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দিতে সে হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে।

এ ঘটনায় স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রিয়াদুজ্জামানসহ মোট পাঁচজন গ্রেপ্তার হলো।

ডিবি পুলিশের দেওয়া এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানা যায়, গত দুই দিন আগে গৌরীপুর থানা থেকে মামলাটি ময়মনসিংহ গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) হাতে ন্যাস্ত হয়েছে তদন্তের জন্য। 

ডিবির ওসি শাহ কামাল আকন্দ জানান, প্রযুক্তি ব্যবহার করে নেত্রকোনা জেলার মোহনগঞ্জ ফাগুয়ার হাওর এলাকা থেকে গতকাল শুক্রবার অভিযুক্ত খাইরুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তিনি কাউরাট পশ্চিমপাড়া গ্রামের মৃত-লালমিয়া ছেলে। জানা যায়, খাইরুল ইসলাম গৌরীপুরের মইলাকান্দা ইউপির চেয়ারম্যান রিয়াদের সহকারী। 

তিনি আরো জানান, ময়মনসিংহের বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মাহবুবা আক্তারের ৪নম্বর আমলী আদালতে হাজির করা হয় খাইরুলকে। সেখানে সে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়। 

হত্যাকাণ্ডের বর্ণনা দিয়ে আসামি বলে, চেয়ারম্যানের নির্দেশে অন্যান্যদের সাথে চাপাতি দিয়ে শুভ্রকে কোপায় সে। এ সময় প্রাণ রক্ষার্থে দৌঁড় দিলে সেখানেও কোপায়।

উল্লেখ্য, গত ১৭ অক্টোবর গৌরীপুর পৌরসভার পান মহালের একটি চায়ের দোকানে সহযোগীদের নিয়ে চা খাচ্ছিলেন শুভ্র। এ সময় চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী এসে শুভ্রকে উপর্যপুরি কুপিয়ে জখম করে। পরে আহত অবস্থায় হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানেই তিনি মারা যান।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা