kalerkantho

শনিবার। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ৫ ডিসেম্বর ২০২০। ১৯ রবিউস সানি ১৪৪২

নাভারনে বিড়ি শ্রমিকদের বিক্ষোভ সমাবেশ

বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি   

২৪ অক্টোবর, ২০২০ ১৭:৩৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নাভারনে বিড়ি শ্রমিকদের বিক্ষোভ সমাবেশ

অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জের ধরে যশোরের নাভারণ আকিজ বিড়ি ফ্যাক্টরির শ্রমিকরা চার দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে বিক্ষোভ সমাবেশ ও সড়ক অবরোধ করেছে। শ্রমিকদের চার দফা দাবিগুলো হলো বন্ধ বিড়ি ফ্য্ক্টরি খুলে দিতে হবে, বকেয়া বেতন পরিশোধ করতে হবে, শ্রমিকদের নামে কোনো মামলা করা যাবে না। স্থানীয়ভাবে বসে মীমাংসা করতে হবে ও বিড়ি ফ্যাক্টরির হেড চেকার ফজলুকে অপসারণ করতে হবে। 

জানা যায়, বিড়ি ফ্যাক্টরির শ্রমিকদের সাথে ফ্যাক্টরির বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সাথে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে অসন্তোষ ছিল। এ ঘটনায় গত মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) থেকে শ্রমিকদের বকেয়া পাওনা পরিশোধ না করে বিড়ি ফ্যাক্টরি বন্ধ করে দেন কর্তৃপক্ষ। বার বার ফ্যাক্টরি খুলে দেওয়ার কথা বললেও কর্তৃপক্ষ ফ্যাক্টরি খুলে দেননি। এরই জের ধরে শত শত শ্রমিকরা শনিবার সকাল ৮টা থেকে বেলা সাড়ে ১২টা পর্যন্ত তারা ফ্যাক্টরির সামনে অবস্থান নেয় এবং যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের ওপর গাছের গুঁড়ি দিয়ে সড়ক অবরোধ করে রাখে। এ ঘটনায় যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের দুই পাশে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় চরম ভোগান্তিতে পড়ে চলাচলকারী শত শত যানবাহন এবং যাত্রীসাধারণ।

বিড়ি শ্রমিকদের বিক্ষোভ সমাবেশ ও সড়ক অবরোধে দাবি আদায়ের বিভিন্ন স্লোগানে উত্তাল হয়ে পড়ে ফ্যাক্টরি এলাকা। ব্যস্ততম সড়কে তীব্র যানজট ও প্রতিবাদী আন্দোলনরত শ্রমিকদের নিয়ন্ত্রণে আনতে স্থানীয় হাইওয়ে পুলিশ, ঝিকরগাছা থানা পুলিশ, নাভারণ সার্কেল এএসপি এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তারা এসে তাদের দাবি পুরণের আশ্বাস দিলে শ্রমিকরা ৪ ঘণ্টা পর সড়ক অবরোধ তুলে নেন। পরে শ্রমিক নেতা, প্রশাসন এবং ফ্যাক্টরি কর্তৃপক্ষগণ মিলে এক ঘরোয়া বৈঠকের মাধ্যমে শ্রমিকদের সব দাবি মেনে নেবেন বলে আশ্বস্ত করলেও সোমবার আবারো বৈঠক শেষে সঠিক সিদ্ধান্ত নেবেন বলে জানান ফ্যাক্টরি কর্তৃপক্ষ এবং আগামী মঙ্গলবার যথানিয়মে ফ্যাক্টরি চালু হবে বলে জানান তারা।

এদিকে বিড়ি শ্রমিকরা জানান, সোমবার বৈঠকশেষে মঙ্গলবার ফ্যাক্টরি খোলা এবং তাদের সব দাবি যথাযথ পূরণ না হলে পুনরায় কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেন শ্রমিক নেতারা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা