kalerkantho

শনিবার। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ৫ ডিসেম্বর ২০২০। ১৯ রবিউস সানি ১৪৪২

সন্তান হত্যার ভয় দেখিয়ে প্রবাসীর স্ত্রীকে বছরের পর বছর ধর্ষণ

নিজস্ব প্রতিবেদক, গাজীপুর   

২৪ অক্টোবর, ২০২০ ১৬:৪৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সন্তান হত্যার ভয় দেখিয়ে প্রবাসীর স্ত্রীকে বছরের পর বছর ধর্ষণ

গাজীপুরের কালীগঞ্জে জমি কেনার ৭ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে ও একমাত্র ছেলেকে হত্যার ভয় দেখিয়ে 'জিম্মি করে' এক প্রবাসীর স্ত্রীকে (৪০) বছরের পর বছর ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় শুক্রবার রাতে মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগী গৃহবধূ।

মামলার পর থেকে পলাতক রয়েছেন কালীগঞ্জের খৈকড়া কোনাপাড়া গ্রামের মৃত ফজর আলী শেখের ছেলে অভিযুক্ত ফারুক হোসেন (৪৫)। জমির দালাল ফারুকের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলাসহ বিদেশে পাঠানোর নামে বহু মানুষের লাখ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ রয়েছে বলে জানায় এলাকাবাসী।

মামলা সূত্রে জানা যায়, জমি কিনে দেওয়ার কথা বলে ২০০৭ সালে খৈকড়া একই গ্রামের বাসিন্দা ওই গৃহবধূর কাছ থেকে ৭ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয় ফারুক। কিন্তু জমি কিনে না দিয়ে টালবাহানা শুরু করে। একপর্যায়ে বিভিন্ন সময়ে একমাত্র ছেলেকে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে গৃহবধূকে জিম্মি করে বিভিন্ন স্থানে নিয়ে ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে আসছিল ফারুক।

সর্বশেষ গত ২৪ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় ঘরে ঢুকে গৃহবধূকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে ফারুক। পরবর্তীতে ২২ অক্টোবর সন্ধ্যা পৌনে ৬টার দিকে ওই গৃহবধূ মাগরিবের নামাজ পড়ার জন্য ওজু করতে গেলে শারীরিক সম্পর্ক গড়ার প্রস্তাব দেয় লম্পট ফারুক। রাজি না হওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে তার চুলের মুঠি ধরে জোড়পূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করে ফারুক। এ সময় গৃহবধূর চিৎকারে তার ছেলে চলে আসলে তাদের দুজনকে গলা কেটে হত্যার হুমকি দিয়ে চলে যায় ফারুক। 

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কালীগঞ্জ থানার পরিদর্শক (অপারেশনস) মোজাম্মেল হক বলেন, মামলার পর থেকে ফারুক পলাতক রয়ছে। তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা