kalerkantho

বুধবার । ২৯ জুন ২০২২ । ১৫ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৮ জিলকদ ১৪৪৩

সতর্ক সংকেত উপেক্ষা

'বৃষ্টি বাতাস ভালো লাগছে না, তাই সাগর জলে গোসল করছি'

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি   

২৩ অক্টোবর, ২০২০ ১৭:৪৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



'বৃষ্টি বাতাস ভালো লাগছে না, তাই সাগর জলে গোসল করছি'

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট গভীর নিম্নচাপের প্রভাবে দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া উপেক্ষা করে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আগত পর্যটকদের উল্লাস-উচ্ছ্বাসে মুখরিত কুয়াকাটা সমুদ্রসৈকত। আজ শুক্রবার সরকারি ছুটির দিনকে কেন্দ্র করে দুদিন আগ থেকে হাজারো পর্যটকের আগমন ঘটে সৈকতে।  

ঘড়ির কাঁটা ৮টা ছুঁইছুঁই, তখন কুয়াকাটা সৈকত যেন লণ্ডভণ্ড হওয়ার অবস্থা। সমুদ্রের উত্তাল ঢেউ আর ঝড়ের তাণ্ডবে সৈকত ছিল পর্যটকশূন্য।

বিজ্ঞাপন

৩০ মিনিট পর ঝড়ের তীব্রতা হ্রাস পেলেও বৃষ্টি উপেক্ষা করে পর্যটকরা সৈকতের বিভিন্ন পয়েন্টে জড়ো হয়। পর্যটন পুলিশ শত চেষ্টা চালিয়েও পর্যটকদের সমুদ্রে গোসল এবং ঝুঁকিপূর্ণ পয়েন্ট থেকে সরিয়ে নিতে হিমশিম খাচ্ছে।

ঢাকা থেকে বেড়াতে আসা পর্যটক মো. মাইনুল হাসান কালের কণ্ঠকে বলেন, 'বুধবার ঢাকা থেকে কুয়াকাটায় এসেছি। দুদিন ধরে বৃষ্টি-বাতাস। ভালো লাগে না। তাই সব কিছু পেছনে ফেলে সাগর জলে গোসল করছি। আমাদের মতো হাজারো মানুষ উচ্ছ্বসিত হয়ে সৈকতে অবস্থান করছে। '

কুয়াকাটা হোটেল-মোটেল অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক কালের কণ্ঠকে বলেন, দুদিন আগ থেকে পর্যটকরা কুয়াকাটায় এসেছে। তারা এখন হোটেলে অবস্থান করছে নিরাপদে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর সূত্রে জনা গেছে, গভীর নিম্নচাপের কারণে ৪ নম্বর স্থানীয় হুঁশিয়ারি সংকেতের পরিবর্তে ৩ নম্বর স্থানীয় হুঁশিয়ারি সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে পায়রা সমুদ্রবন্দরকে।



সাতদিনের সেরা