kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ১ ডিসেম্বর ২০২০। ১৫ রবিউস সানি ১৪৪২

বাতের ব্যথা-হাড়ক্ষয় প্রতিরোধে ৬ দিনের ফ্রি স্ক্রিনিং ক্যাম্প

পঞ্চগড়ে মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার জোর দাবি

পঞ্চগড় প্রতিনিধি   

২৩ অক্টোবর, ২০২০ ১৬:৫৫ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



পঞ্চগড়ে মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার জোর দাবি

প্রান্তিক জেলা হওয়ায় রোগ নিয়ে পঞ্চগড়ের বাসিন্দাদের ছুটতে হয় রংপুর, দিনাজপুর কিংবা ঢাকায়। পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালসহ জেলার সরকারি হাসপাতালগুলোতে অধিকাংশ রোগের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক না থাকায় চরম বিড়ম্বনায় পড়তে হয় রোগীদের। অনেক সময় জরুরি রোগীদের দূরে নিয়ে যেতে পথেই মারা যাওয়ার ঘটনাও ঘটে। তাই পঞ্চগড়ে একটি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের দাবি দীর্ঘদিনের। আজ শুক্রবার অত্যাধুনিক মেশিনে আলট্রাসাউন্ড পদ্ধতিতে বিনামূল্যে বোন মিনারেল ডেনসিটি (বিএমডি) পরীক্ষার মাধ্যমে বাত ব্যথা ও হাড়ক্ষয় প্রতিরোধে ৬ দিনব্যাপী ফ্রি স্ক্রিনিং ক্যাম্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এই দাবি আরও জোড়ালো হয়। 

অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিসহ সর্বস্তরের মানুষ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল স্থাপনের জোর দাবি তোলেন। তারুণ্যদীপ্ত স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন 'জাগ্রত তেঁতুলিয়া'র আয়োজনে ৬ দিনব্যাপী এই হেলথ ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হচ্ছে পঞ্চগড় ও তেঁতুলিয়ার আলাদা আলাদা ৪ টি স্থানে। নিউজিল্যান্ড ডেইরি প্রোডাক্টস্ বাংলাদেশ লিমিটেডের সৌজন্যে এই আয়োজনে সহযোগিতা করছে কালের কণ্ঠ শুভসংঘ। অনুষ্ঠান বাস্তবায়নে সার্বিক সহায়তা করছে পঞ্চগড় জেলা পরিষদ, পঞ্চগড় জেলা পুলিশ, তেঁতুলিয়া উপজেলা প্রশাসন, তেঁতুলিয়া উপজেলা পরিষদ, তেঁতুলিয়া থানা, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স।

আজ শুক্রবার সকালে জেলা পরিষদ ভবন চত্বরে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে জেলা প্রশাসক ড. সাবিনা ইয়াসমিন হেলথ ক্যাম্পের উদ্বোধন করেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুদর্শন কুমার রায়, মকবুলার রহমান সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. দেলওয়ার হোসেন প্রধান, পৌর মেয়র তৌহিদুল ইসলাম, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম, পঞ্চগড় প্রেসক্লাবের সভাপতি সফিকুল আলম, পঞ্চগড় সরকারি মহিলা কলেজের অর্থনীতি বিভাগের প্রধান হাসনুর রশিদ বাবু। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন হেলথ ক্যাম্পের আহ্বায়ক জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আনোয়ার সাদাত সম্রাট। নিউজিল্যান্ড ডেইরি প্রোডাক্টস ও এসআইবিএল হাসপাতালের ক্লিনিক্যাল ডায়টিশিয়ান রেবেকা সুলতানা হেলথ ক্যাম্পের আয়োজনের কারণ ব্যাখা করে বক্তব্য দেন। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন জাগ্রত তেঁতুলিয়ার আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট আহসান হাবিব।
 
এই হেলথ ক্যাম্পের মাধ্যমে প্রায় দেড় হাজার মানুষকে স্ক্রিনিংয়ের আওতায় আনা সম্ভব হবে। ঢাকা থেকে প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতিসহ পঞ্চগড়-তেঁতুলিয়া অঞ্চলে সপ্তাহব্যাপী অবস্থান করছেন নিউজিল্যান্ড ডেইরি প্রোডাক্টস ও এসআইবিএল হাসপাতালের ক্লিনিক্যাল ডায়েটিশিয়ান রেবেকা সুলতানা রুমা ও একটি বিশেষজ্ঞ হেলথ টিম।

এসব হেলথ ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হচ্ছে ২৩ ও ২৪ অক্টোবর পঞ্চগড় জেলা পরিষদ ভবন চত্বরে, ২৫ অক্টোবর তেঁতুলিয়ার ভজনপুরের বেগম খালেদা জিয়া গার্লস স্কুলে, ২৭ ও ২৮ অক্টোবর তেঁতুলিয়ার কাজী শাহাবুদ্দিন গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজ প্রাঙ্গণে এবং ২৯ অক্টোরর তেঁতুলিয়ার খয়খাট পাড়া নূরানীয়া ও হাফেজিয়া মাদরাসা মাঠে। প্রতিদিন সকাল সাড়ে ৯ টায় কার্যক্রম শুরু হয়ে দিনব্যাপী চলবে এসব হেলথ ক্যাম্প। ক্যাম্পের বিভিন্ন পর্বে চিকিৎসকগণও স্বাস্থ্য পরামর্শ দেবেন বলে জানা গেছে। 

জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আনোয়ার সাদাত সম্রাট জানান, মূলত বাতের ব্যথা ও হাড়ক্ষয় রোধে জনসাধারণের মধ্যে জনসচেতনতা তৈরিতেই প্রথমবারের মতো এমন আয়োজনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। কারো হাড়ে কোনো ধরনের ক্ষয় আছে কিনা অথবা ভবিষ্যতে তিনি হাড় ক্ষয়ের ঝুঁকির দিকে যাচ্ছেন কিনা তা জানা  যাবে এই বিএমডি পরীক্ষার মাধ্যমে। 

প্রত্যেকের মাস্ক পড়া, হাত ধোয়া, শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখাসহ করোনার সব ধরনের স্বাস্থ্যবিধি মেনেই এসব হেলথ ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হচ্ছে যাতে প্রি রেজিস্ট্রেশনের ভিত্তিতে তিরিশোর্ধ্ব ব্যক্তিরা অংশ নিতে পারছেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা