kalerkantho

শনিবার । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৮ নভেম্বর ২০২০। ১২ রবিউস সানি ১৪৪২

সম্ভাব্য প্রার্থীর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ মেয়রের ভাগ্নীর!

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি   

২২ অক্টোবর, ২০২০ ২০:০২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সম্ভাব্য প্রার্থীর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ মেয়রের ভাগ্নীর!

রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আড়ানী পৌর নির্বাচনকে সামনে রেখে সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী রিবন আহাম্মেদ বাপ্পীসহ তার এক বন্ধুর বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা দায়ের করা হয়েছে। বর্তমান মেয়র মুক্তার আলীর ভাগ্নী বৃহস্পতিবার বিকেলে তিনমাস পূর্বের ঘটনা উল্লেখ করে এ মামলা দায়ের করেন। এ মামলার স্বাক্ষী হয়েছে রাজশাহী থেকে আগত চার সাংবাদিক।

বাদী এরশাদ আলী মহিলা ডিগ্রি কলেজ পড়ুয়া ওই ছাত্রী জানান, তিনমাস পূর্বে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তাকে ধর্ষণ করে বাপ্পী। এ সময় তাকে সহায়তা করে তার বন্ধু বিপ্লব।

তবে বাপ্পী স্থানীয় সাংবাদিকদের কাছে এ ঘটনা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন। তিনি বলেন, আসন্ন আড়ানী পৌর নির্বাচনকে সামনে রেখে আমি সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী হিসাবে গণসংযোগ করছি। আমার পক্ষে দলীয় লোকজন কাজ করছে। আর এ বিষয়টি মেনে নিতে পারছে না বর্তমান মেয়র মুক্তার আলী। এ কারণে তিনি ষড়যন্ত্র করে তার মামাতো বোনের মেয়েকে দিয়ে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যে মামলা দায়ের করিয়েছেন।

মেয়র মুক্তার আলী বলেন, মেয়েটা আমার আত্মীয়। আজ থেকে ৩-৪ মাস পূর্বে সে আমার কাছে বাপ্পীর বিরুদ্ধে অভিযোগ নিয়ে এসেছিল। কিন্তু কোনো প্রমাণ না থাকায় আমি বিচার করতে পারিনি। আপনি পুলিশকে ঘটনাটি জানিয়েছেন কি না এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, মেয়েটি আমার ভাগ্নী। তাই মানসম্মানের ভয়ে বিষয়টি ধামাচাপা দেই। তাহলে এখন মামলা হলো কি করে? এ সময় তিনি বলেন, এ মামলা করানোর সাথে আমার কোনো হাত নেই।

আড়ানী বাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদক নওশাদ আলী বলেন, এটা ভিত্তিহীন অভিযোগ। বুধবার মেয়ের মুক্তার আলীর ডাকে রাজশাহী থেকে চারজন সাংবাদিক এসছিল তার কার্যালয়ে। তারা স্বাক্ষী হয়ে পরদিন ওই কলেজ ছাত্রীকে দিয়ে এই মিথ্যে মামলাটি দায়ের করিয়েছেন।

বাঘা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম জানান, অভিযোগ পেয়েছি। মামলা রেকর্ড করা হয়েছে। তদন্ত পূর্বব ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা