kalerkantho

সোমবার । ৩ কার্তিক ১৪২৭। ১৯ অক্টোবর ২০২০। ১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

নিয়োগ স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার না হওয়া পর্যন্ত শিক্ষা কার্যক্রম স্থগিত

নোবিপ্রবি প্রতিনিধি   

১ অক্টোবর, ২০২০ ২২:০৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নিয়োগ স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার না হওয়া পর্যন্ত শিক্ষা কার্যক্রম স্থগিত

নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম অহিদুজ্জামানের মেয়াদে নিয়োগে অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগে বিশ্ববিদ্যালয়টির সব ধরণের নিয়োগ স্থগিত করেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়। কিন্তু দেড় বছরের বেশি সময় পেরিয়ে গেলেও নিয়োগ স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করেনি মন্ত্রণালয়। নিয়োগ স্থগিতাদেশের কারণে বিশ্ববিদ্যালয়টির সব ধরণের নিয়োগ কার্যক্রম স্থগিত রয়েছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক আরোপিত সেই নিয়োগ স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার না হওয়া পর্যন্ত শিক্ষা কার্যক্রম স্থগিতের ঘোষণা দিয়েছে শিক্ষক সমিতি।

বৃহস্পতিবার নোবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. নেওয়াজ মোহাম্মদ বাহাদুর ও সাধারণ সম্পাদক মজনুর রহমান স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে শিক্ষা কার্যক্রম স্থগিত রাখার বিষয়টি জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বর্তমান উপাচার্য মহোদয়কে নিয়োগের পূর্বে অত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়োগ সংক্রান্ত যে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে তা এখনো বলবৎ রয়েছে। বিভিন্ন পত্রপত্রিকার মাধ্যমে আমরা জানতে পেরেছিলাম এর জন্য একটি তদন্ত কমিটি গঠিত হয়েছে, যার ফলাফল আমরা আজও দেখতে পাইনি। প্রায় এক বছর পাঁচ মাস অতিক্রান্ত হওয়ার পরও নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হয়নি। ফলশ্রুতিতে শিক্ষকরা বিভিন্ন বৈষম্যের সম্মুখীন হচ্ছেন। অনেকগুলো বিভাগেই পর্যাপ্ত শিক্ষক নেই, মাত্র দুই জন শিক্ষক দিয়ে দুইটি শিক্ষাবর্ষের পাঠদান চলছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, শিক্ষক সমিতি সর্বশেষ গত ২০ সেপ্টেম্বর মানববন্ধন করে ৩০ সেপ্টেম্বরের মাঝে এই সমস্যার সমাধান করার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়। উপাচার্য বারবার আশ্বাস দিলেও সমাধান হয়নি। ফলে শিক্ষক সমিতি অস্থায়ী শিক্ষকদের দাবির প্রেক্ষিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল প্রকার শিক্ষা কার্যক্রম অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত গ্রহণ নিয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা