kalerkantho

রবিবার । ৯ কার্তিক ১৪২৭। ২৫ অক্টোবর ২০২০। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

বেনাপোলে ১৩টি সোনার বারসহ নারী আটক

বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি   

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০৫:০৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বেনাপোলে ১৩টি সোনার বারসহ নারী আটক

যশোরের শার্শা সীমান্ত থেকে ১৩টি সোনার (দেড় কেজি) বারসহ পপি খাতুন (২৪) নামে এক নারী পাচারকারীকে আটক করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সদস্যরা।

মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে বেনাপোলের শিকড়ি বটতলা থেকে তাকে আটক করা হলেও বিকাল ৫টার দিকে প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বিজিবি সাংবাদকর্মীদের অবহিত করেন। উদ্ধারকৃত সোনার বাজার মূল্য ৯১ লাখ ৫১ হাজার ৮০০ টাকা। আটককৃত পপি পুটখালী পশ্চিমপাড়া গ্রামের কামাল হোসেনের স্ত্রী।

খুলনা ২১ বিজিবি ব্যাটলিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মোহাম্মদ মনজুর-ই-এলাহী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শার্শার পাঁচভুলট বিওপি’র একটি টহল দল মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে বেনাপোলের শিকড়ি বটতলা বালুরমাঠ ব্রিজের ওপর হতে পপি খাতুনকে আটক করা হয়।

পরে তার দেহ তল্লাশি করে দেড় কেজি ওজনের ১৩টি স্বর্ণের বারসহ আটক করা হয়। যার আনুমানিক মূল্য ৯১ লাখ ৫১ হাজার ৮০০ টাকা। আটককৃত আসামিকে সোনার বারসহ বেনাপোল পোর্ট থানায় সোপর্দ করা হয়েছে বলে তিনি জানান। 

এদিকে বিজিবির হাতে সোনা আটকের ঘটনার কথা স্থানীয় সংবাদ কর্মীরা গোপন তথ্যে জানতে পেরে বেলা ১১টার দিকে ওই ক্যাম্প এলাকায় যান। এ বিষয়ে জানার জন্য পাঁচভুলোট ক্যাম্পের সামনে প্রায় ৩ ঘণ্টা অপেক্ষা করলেও বিজিবি সাংবাদিকদের কোনো তথ্য প্রদান করেননি। 

এমনকি ক্যাম্পের মধ্যে প্রবেশ করতেও দেননি। এ নিয়ে স্থানীয় সাংবাদিকদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। তবে বিজিবি পক্ষ থেকে বলা হয়েছে সংবাদ সংগ্রহ করতে অনেক সাংবাদিক আসায় করোনার কারণে কাউকে ভেতরে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা