kalerkantho

শনিবার । ৮ কার্তিক ১৪২৭। ২৪ অক্টোবর ২০২০। ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

প্রকাশ্যে শ্লীলতাহানিকারীর দম্ভোক্তি 'পুলিশে কিছু হবে না'

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি   

২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১৯:৫৭ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



প্রকাশ্যে শ্লীলতাহানিকারীর দম্ভোক্তি 'পুলিশে কিছু হবে না'

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রকাশ্যে এক তরুণীকে শ্লীলতাহানি করা যুবক রাহিম মিয়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক লাইভে এসে নিজের পক্ষে অবস্থান নিয়ে কথা বলেছেন। 'সেবাই ধর্ম' নামে একটি আইডি থেকে প্রায় ৩৭ মিনিটের এক বার্তায় ওই যুবক নিজের সাফাই গেয়ে দম্ভোক্তি করে বলে 'পুলিশে কিছু হবে না'। লাইভ দেওয়ার সময় ওই যুবক ঢাকার সাভারের নবীনগর এলাকায় আছে বলে উল্লেখ করে।

এদিকে তরুণীকে শ্লীলতাহানি করার ভিডিও ভাইরাল হওয়ার ছয় দিনেও তাকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। তবে এ ঘটনায় রাহিমসহ পাঁচজনের নাম উল্লেখসহ আরো তিন-চারজনকে আসামি করে সোমবার সদর থানায় মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। এর আগে রবিবার রাতে জুনাঈদ নামে একজনকে গ্রেপ্তার করে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকার দক্ষিণ পৈরতলার আউয়াল মিয়ার ছেলে জুনাঈদ ঘটনার সঙ্গে জড়িত বলে পুলিশ জানিয়েছে। ঘটনাটি গত বছরের ডিসেম্বর ও কিংবা চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে বলে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

রাহিম ফেসবুক লাইভে এসে বলে, 'আমি এত খারাপ না। আমি ছিনতাইকারী না। খারাপ হলে কি মানবসেবায় কাজ করতাম। শিশুদের নিয়ে কাজ করতাম। কে বা কারা কি উদ্দেশ্যে ওই ভিডিওটি ফেসবুকে দিল আমি বুঝতে পারছি না। আমার খারাপ দিকটাই ভিডিও করা হয়েছে। আমার পরিবার থেকে, বন্ধুবান্ধব থেকে নানা কথা বলা হচ্ছে'।
 
সে বলে, 'আমি তো কোনো অন্যায় করিনি। মেয়েটি একটি ছেলের সাথে আসে। এমনও তো হতে পারত, সে ধর্ষিত হলো। এ কারণে ওই ছেলেটিকে ডেকে এনে শাসনের মতো করে মারধর করি। মাদরাসায় পড়তাম বলে ছোটবেলা থেকেই আমার প্রতিবাদের অভ্যাস। যে কারণে এ কাজটা করেছি। আর ভিডিও না করলে হয়তো সেই কাজটি (তরুণীর গালে চুমু দেওয়া) করতাম না। মেয়েটিকে যে টাকা দেওয়া হয়েছে বাড়ি যাওয়ার জন্য সেটা ভিডিওতে নাই'।

২৩ সেপ্টেম্বর 'উইশ ফর বেটার ব্রাহ্মণবাড়িয়া' নামের ফেসবুক পেজে শ্লীলতাহানির ওই ভিডিও পোস্ট করা হলে কিছুক্ষণের মধ্যেই ছড়িয়ে পড়ে। ভিডিওতে দেখা যায়, কালো বোরখা পড়া এক তরুণীকে ঘিরে রেখেছে তিন-চার বখাটে। ওই তরুণীর হাত ব্যাগ থেকে এক বখাটে টাকা ছিনিয়ে নেয়। অন্যরা বলতে থাকে তাকে বাসায় যাওয়ার ভাড়া যেন দিয়ে দেওয়া হয়। টাকা ছিনিয়ে নেওয়া বখাটের পায়ে ধরে ওই তরুণী 'আপনারা আমার ভাই' বলে আকুতি করে। একপর্যায়ে টাকা নেওয়া বখাটে তরুণীর বোরখা মুখ থেকে সরিয়ে নেয়। পরে সে একে একে চুমু খেতে থাকে ও গালাগাল করে। ভিডিওটি এক মিনিট ১১ সেকেন্ডের। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা