kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৩ কার্তিক ১৪২৭। ২৯ অক্টোবর ২০২০। ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

ভিক্ষুকের মাটির ঘরটিও ভেঙে দিল!

দামুড়হুদা (চুয়াডাঙ্গা) প্রতিনিধি   

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ২০:২৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভিক্ষুকের মাটির ঘরটিও ভেঙে দিল!

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদার সীমান্তবর্তী হুদাপাড়া গ্রামে বিধবা ভিক্ষুক আবিছন বেগম (৬৫)-এর  বসতঘর ভেঙে গুড়িয়ে দিয়েছে প্রতিপক্ষ আপেল উদ্দিনের লোকজন। এ সময় জমিতে থাকা গাছও কেটে দিয়েছে তারা। শুক্রবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

আপেল উদ্দীন জানান, ওই জমি তার। আদালতের রায়ও তার পক্ষে আসে। এ বছরের প্রথম দিকে তিনি ওই জমি থেকে ভিক্ষুকের উচ্ছেদ মামলা করেন। গত ২২ নভেম্বর মামলার রায় তার পক্ষে আসে। শুক্রবার দুপুরের দিকে আদালতের পক্ষ থেকে ওই জমিতে লাল পতাকা টানিয়ে দেওয়া হয়। 

জানা যায়, আদালতের লোকজন পতাকা টানিয়ে দিয়ে যাওয়ার পরপরই আপেলসহ ১৪-১৫ জন মিলে জমিতে থাকা ভিক্ষুকের মাটির বসতঘরটি ভেঙে গুড়িয়ে দেয়।

আবিছন বেগম বলেন, জমি কিনে খারিজ করে নিয়মিত খাজনা দিয়ে আসছি। প্রায় ৪০-৫০  ধরে এখানে বসবাস করছি। আমি একজন অসহায় স্বামী হারা মানুষ। 

তিনি আরো জানান, এ জমি নিয়ে কোনো মামলা হয়েছে কি না জানেন না। এ যাবত তার নিকট কোনো নোটিশও আসেনি। 

দামুড়হুদা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল খালেক বলেন, আবিছন বেগম নামে এক মহিলা অভিযোগ করেছে। তদন্তের জন্য ফোর্স পাঠানো হয়েছে। তদন্তের পর সব জানা যাবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা