kalerkantho

শনিবার । ৮ কার্তিক ১৪২৭। ২৪ অক্টোবর ২০২০। ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

বরিশাল অফিস   

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১৮:৩৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

বরিশালের হিজালাতে স্ত্রী হত্যার দায়ের স্বামী মনির হোসেনকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছে আদালত। বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালেন বিচারক আবু শামীম আজাদ এই রায় দেন। দণ্ডপ্রাপ্ত মনির হোসেন হিজলা উপজেলার ভাওশিয়া গ্রামের বাসিন্দ শফী রাঢ়ীর ছেলে। রায়ের সময়ে আদালতে অভিযুক্তরা উপস্থিত ছিলেন। আদালতের স্পেশাল পিপি অ্যাডভোকেট ফয়জুল হক ফয়েজ নিশ্চিত করেছেন।

মামলা নথি সূত্রে জানা গেছে, ২০১৩ সালের ৬ জানুয়ারি ৫০ হাজার টাকা যৌতুকের দাবিতে মনির তার স্ত্রী মাকসুদাকে মারধর করে আহত করে। আহত মাকসুদা বেগম ওইদিন রাত সাড়ে ৮টায় মারা যান। এ ঘটনায় তার বড় ভাই অলিউদ্দিন বাদী হয়ে পরদিন হিজলা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলায় মাকসুদার স্বামী মনির হোসেন রাঢ়ী, শ্বশুর শফী রাঢ়ী, শাশুড়ি রাশিদা বেগম এবং দেবর নাসির রাঢ়ীকে আসামি করা হয়। মামলার তদন্ত শেষে ২০১৩ সালের ১৯ মে আদালতে অভিযোগপত্র জামা দেন তদন্ত কর্মকর্ত।

মামলার ১৪ জন স্বাক্ষীর স্বাক্ষ্য গ্রহন শেষে মনির হোসেনর বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণ হওয়ায় তার মৃত্যুদণ্ড প্রদান করেন আদলতের বিচারক। পাশাপাশি শ্বশুর ও দেবর বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণ না হওয়ায় তাদের বেকসুর খালাস দেওয়া হয়। মামলা চলাকালে অপর আসামি নিহতর শ্বাশুড়ি মৃত্যু বরণ করেন।

মালার রাষ্ট্র পক্ষের আইনজীবী ছিলেন সরকারী কৌশলী অ্যাডভোকেট ফয়জুল হক ও আসামি পক্ষের আইনজীবী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অ্যাডভোকেট মো. মিজানুর রহমান টিটু। আসামি পক্ষের আইনজীবী মো. মিজানুর রহমান টিটু বলেন, এই রায়ে আমরা সন্তুষ্টু হতে পারিনি। রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতের শরাণাপন্ন হবো।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা