kalerkantho

মঙ্গলবার । ৪ কার্তিক ১৪২৭। ২০ অক্টোবর ২০২০। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

মধ্যরাতে পরকীয়া প্রেমিকার বাড়ি আওয়ামী লীগ নেতা! অতঃপর...

উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি   

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১৬:৫০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মধ্যরাতে পরকীয়া প্রেমিকার বাড়ি আওয়ামী লীগ নেতা! অতঃপর...

কুড়িগ্রামের উলিপুরে এক নারীর বাড়ি থেকে মধ্যরাতে আওয়ামী লীগ নেতাকে উদ্ধার করে গণধোলাই দিয়েছে জনগন। এ সময় তার বিরুদ্ধে ওই নারীর সঙ্গে পরকীয়া প্রেম এবং অনৈতিক কাজে লিপ্ত থাকার অভিযোগ আনা হয়। পরে তাকে পুলিশে সোপর্দ করে স্থানীয়রা। অভিযুক্ত নেতার নাম মুকুল মন্ডল। তিনি উলিপুর পৌরসভার ২নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং পূর্ব নাওডাঙা গ্রামের আব্দুল ওহাবের ছেলে।  

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার দলদলিয়া ইউনিয়নের মিয়াপাড়া গ্রামের ঢাকায় কর্মরত এক রাজমিস্ত্রির স্ত্রী সঙ্গে মুকুল মন্ডলের দীর্ঘদিন ধরে অবৈধ সম্পর্ক চলছিল। ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে মুকুল ওই বাড়িতে অবাধে যাতায়াত করতেন। গতকাল বুধবার রাতে প্রবল বৃষ্টি উপেক্ষা করে মুকুল মন্ডল ওই নারীর বাড়িতে প্রবেশ করলে স্থানীয় লোকজনের চোখে পড়ে। পরে তারা সংঘবদ্ধ হয়ে ওই বাড়িতে যায়। এ সময় মুকুল ঘরের বেড়া ভেঙে পালিয়ে যাওয়ার সময় একটি ডোবায় পড়ে যায়।

এসময় এলাকাবাসী তাকে আটক করে অবৈধ কর্মকাণ্ডের কারণে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। আজ বৃহস্পতিবার সকালে মুকুলকে থানায় এনে পরে কুড়িগ্রাম জেল-হাজতে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

পৌরসভার ২নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি নুর আলম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি-সম্পাদককে জানাব।

উলিপুর পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম বলেন, বিষয়টি শুনেছি, তদন্তের মাধ্যমে প্রকৃত ঘটনা উৎঘাটন করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উলিপুর থানার ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, যেহেতু কেউ মামলা দেয়নি তাই তাকে ১৫১ ধারায় জেল-হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা