kalerkantho

শনিবার । ৮ কার্তিক ১৪২৭। ২৪ অক্টোবর ২০২০। ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

চাকরি দেবেন বলে ৯ লাখ নিলেন কৃষি কর্মকর্তা!

রাণীনগর (নওগাঁ) প্রতিনিধি   

২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১৯:৩৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চাকরি দেবেন বলে ৯ লাখ নিলেন কৃষি কর্মকর্তা!

প্রতীকী ছবি

নওগাঁর রাণীনগরে কৃষি অফিসে উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে ঘুষ গ্রহনের অভিযোগ উঠেছে। সরকারি চাকরির কথা বলে তিনি ৯ লাখ ১৫ হাজার টাকা ঘুষ নিয়েছেন বলে অভিযোগ। বিষয়টি প্রয়োজনীয় তদন্তের জন্য মাঠ পর্যায়ে কাজ করছে তদন্ত কমিটি।

অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, গত ২০১৮ সালের ২৩ জানুয়ারি ১৬৫০টি পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর। সেখানে আবেদন করেন জয়পুরহাট জেলার আক্কেলপুর উপজেলার যোগীভিটা গ্রামের রফিকুল আলমের ছেলে নাছিমুজ্জামান। ওই পদে চাকরি দেওয়ার কথা বলে ভাইভা পরীক্ষার আগে ও পরে কয়েক দফায় চেকের মাধ্যমে এবং নগদসহ মোট ৯ লাখ ১৫ হাজার টাকা ঘুষ নেন কৃষি কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেনে। কিন্তু সেই পদে নাসিমুজ্জামানের চাকরি না হওয়ায় ঘুষ গ্রহনকারী আনোয়ার হোসেনের কাছ থেকে টাকা ফেরত চান। তবে আনোয়ার টাকা ফেরত না দিয়ে নাসিমুজ্জামানকে বিভিন্ন হুমকি দেন।

অবশেষে টাকা ফেরত পেতে এবং এ ঘটনার বিচার দাবি করে গত ১৭ আগষ্ট কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের রাজশাহী অঞ্চলের অতিরিক্ত পরিচালক বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন নাসিমুজ্জামান। গত ১৫ সেপ্টেম্বর নওগাঁর আত্রাই উপজেলা কৃষি অফিসার কেএম কাওছার হোসেনকে আহবায়ক করে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। তদন্ত কমিটি গতকাল সোমবার অভিযুক্ত আনোয়ারের কর্মস্থল রাণীনগর এসে এ ঘটনার তদন্ত করেন।

এ ব্যাপারে রাণীনগর উপজেলা কৃষি অফিসে কর্মরত উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন মোবাইল ফোন রিসিভ না করায় তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

রাণীনগর উপজেলা কৃষি অফিসার শহিদুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় গতাকল সোমবার তদন্ত শুরু হয়েছে।

তদন্ত কমিটির আহবায়ক আত্রাই উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কেএম কাওছার হোসেন জানান, তদন্ত শেষে প্রতিবেদন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের নওগাঁর উপপরিচালক বরাবর পাঠানো হয়েছে। প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা ঊদ্ধর্তন কর্তৃপক্ষ গ্রহন করবেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা