kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৬ কার্তিক ১৪২৭। ২২ অক্টোবর ২০২০। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

বাকৃবি শুভসংঘ বন্ধুদের ভার্চুয়াল আড্ডা

বাকৃবি প্রতিনিধি   

২১ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ২১:৫৩ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বাকৃবি শুভসংঘ বন্ধুদের ভার্চুয়াল আড্ডা

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (বাকৃবি) শাখার বন্ধুদের ভার্চুয়াল আড্ডা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার দুপুরে এ ভার্চুয়াল আড্ডায় শাখা শুভসংঘের বন্ধুরা অংশ নেন।

এতে উপস্থিত ছিলেন বাকৃবি শাখা শুভসংঘের উপদেষ্টা ও কালের কণ্ঠের বাকৃবি প্রতিনিধি আবুল বাশার মিরাজ, সভাপতি মতিউর রহমান সুমন, সাধারণ সম্পাদক মাহফুজা মিষ্টি, সহসাধারণ সম্পাদক মেহজাবিন ইসলাম তৃষা, সাধারণ সদস্য সাদিয়া ইসলাম সিনজা, নূরে জান্নাতি জেবা, কার্যকরী সদস্য রাসেল মাহমুদ, শুভসংঘের বন্ধু সুচিত্র চন্দ্র দাসসহ অনেকে।

ভার্চুয়াল আর্ড্ডার অনুভূতি জানতে চাইলে শাখা শুভসংঘের সভাপতি মতিউর রহমান সুমন বলেন, শুভকাজে সবার পাশে স্লোগানকে বুকে ধারণ করে করোনাকালেও বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকলেও বাকৃবি শুভসংঘের বন্ধুরা সবাই নিজ নিজ জায়গা থেকে এলাকা ও মানুষের জন্য কাজ করেছেন এটি বন্ধুদের কাছ থেকে জেনে ভালো লাগছে। ভার্চুয়াল আড্ডায় মিলিত হতে পেরে সত্যিই অনেক ভালো লাগছে। আড্ডার শেষে আমরা বাকৃবি শাখা শুভসংঘের পক্ষ থেকে অনলাইন প্রতিযোগিতার বিষয়েও আলোচনা হয়। আশা করছি সে বিষয়েও দ্রুত সকলকে জানাতে পারবো।

শাখা শুভসংঘের সাধারণ সম্পাদক মাহফুজা মিষ্টি বলেন, প্যান্ডেমিক সিচুয়েশনের জন্য দীর্ঘদিন শুভ সংঘের সকল বন্ধুদের থেকে দূরে থাকায় সেভাবে কোনো মিটিং বা আড্ডা হয়ে উঠেনি। তবুও ভার্চুয়ালি সবাই কাছাকাছি থাকার চেষ্টা করেছি আমরা। তারই ধারাবাহিকতায় আমাদের আজকের এই অনলাইন আড্ডা। অনেকদিন পর সবার প্রাণবন্ত অংশগ্রহণে বেশ ভালো একটা সময় কেটেছে। সকলকে অসংখ্য ধন্যবাদ এবং ভালোবাসা তাদের সুন্দর অংশগ্রহণের জন্য। উপদেষ্টা এবং সভাপতি ভাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ এমন সুন্দর আয়োজনের জন্য। সকলের সুস্বাস্থ্য এবং সুন্দর জীবন কামনা করছি।

শাখা শুভসংঘের সহসাধারণ সম্পাদক মেহজাবিন ইসলাম তৃষা বলেন, অনেকদিন থেকে অপেক্ষা করছিলাম এমন একটি আড্ডার।  করোনাকালীন সময়ের নিজের বিভিন্ন কার্যক্রম নিয়ে বলতে অনেক ভালো লাগছিল। প্রিয় মানুষগুলোকে অনেকদিন পর দেখতে পেয়েও ভালো লাগছিল। আড্ডা দিতে দিতে কখন সময় পার হয়ে গেছে বুঝতেই পারিনি। 

শাখা শুভসংঘের কার্যকরী সদস্য রাসেল মাহমুদ বলেন, কভিড-১৯ একদিকে যেমন আমাদেরকে চার দেয়ালে বন্দী করে রেখেছে, তেমনি ভালোর দিকটায় সুযোগ করে দিয়েছে নিজের ট্যালেন্টগুলো খুঁজে পাবার, অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াবার, শুভ সংঘের বন্ধুদের আড্ডায় সেই অভিজ্ঞতাগুলো শুনতে ও শোনাতে পেরে আমি আনন্দিত, যা পরবর্তীতে আমাকে অনুপ্রেরণা যোগাবে।

শাখা শুভসংঘের সাধারণ সদস্য সাদিয়া ইসলাম সিনজা বলেন, এতদিন পর প্রিয় মানুষগুলোর সাথে কথা হলো,সত্যিই এক অসাধারণ অনুভূতি। সময় কোনদিক থেকে শেষ হয়ে গেলো বোঝায় যায় নি। সত্যি বলতে আমি চাচ্ছিলাম আড্ডাটা আরো দীর্ঘ হোক।তারপরও স্বল্প সময়ের মধ্যেই এক সুন্দরতম সময়।

শাখা শুভসংঘের সাধারণ সদস্য নূরেজান্নাতী জেবা বলেন, করোনা পরিস্থিতির মধ্যে থেকেও অনলাইনে সুন্দর একটি মিটিং এবং আড্ডার আয়োজন করার জন্য কালের কণ্ঠ শুভসংঘ বাকৃবির শাখাকে অসংখ্য ধন্যবাদ। সকলেই যেভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলে নিজ নিজ অবস্থান থেকে বিভিন্ন ভালো কাজে অংশগ্রহণ করেছে সেগুলো শুনে খুব ভালো লেগেছে। সকলে ভাল থাকুন, সুস্থ থাকুন এই প্রত্যাশা করি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা