kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৬ কার্তিক ১৪২৭। ২২ অক্টোবর ২০২০। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

আপত্তিকর অবস্থায় ধরা! অপরাধ ঢাকতে প্রেমিকা ও তার ছোট বোনকে হত্যা

রংপুর অফিস   

২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ২০:২২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আপত্তিকর অবস্থায় ধরা! অপরাধ ঢাকতে প্রেমিকা ও তার ছোট বোনকে হত্যা

রংপুরের নগরীর মধ্য গণেশপুর এলাকায় চাচাতো দুই বোনকে হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে বড়বোনের প্রেমিক রিফাত। আজ রবিবার বিকেলে রংপুর কোতয়ালি সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্টেট আমলী আদালতের বিচারক দেলোয়ার হোসেনের কাছে সে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মেট্রোপলিটন কোতয়ালি থানার ওসি আব্দুর রশিদ।

শুক্রবার দুপুরে নগরীর গনেশপুর এলাকা থেকে সুমাইয়া আক্তার মীমের (১৬) মরদেহ ঘরের ভেতর ফ্যানের সঙ্গে ঝুলানো অবস্থায় এবং তার চাচাতো বোন জান্নাতুল মাওয়ার (১৪) মরদেহ মেঝে থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় শনিবার সকালে নিহত জান্নাতুল মাওয়ার বাবা মামলা দায়ের করেন। পুলিশ ওই রাতেই নগরীর উত্তর বাবুখাঁ এলাকা থেকে এমদাদুল ইসলামের ছেলে মুলাটোল মদিনাতুল মাদরাসার আলিম প্রথম বর্ষের ছাত্র মাহফুজার রহমান রিফাত নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করে। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আজ বিকেলে তাকে আদালতে নেওয়া হলে সে হত্যার দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দেয়।

পুলিশ জানায়, বড়বোন মীমের সাথে রিফাতের প্রেম ঘটিত সম্পর্ক ছিল। ঘটনার রাতে বাড়িতে কেউ না থাকায় ছোটবোন জান্নাতুলকে নিয়ে এক সাথে ঘুমায় তারা। রাতে কোনো এক সময়ে রিফাত ঘরে প্রবেশ করে মীমের সাথে ঘনিষ্ট হওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় ছোট বোন জান্নাতুল তাদের আপত্তিকর অবস্থায় দেখে ফেললে রিফাত প্রথমে জান্নাতুলকে গলাকেটে হত্যা করে। পরে মীমকে শ্বাসরোধে হত্যার পর মরদেহ ফ্যানের সাথে ঝুলিয়ে রাখে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা