kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৬ কার্তিক ১৪২৭। ২২ অক্টোবর ২০২০। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

'করোনার ক্ষতি পুষিয়ে নিতে সরকার সম্মিলিতভাবে কাজ করছে'

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুমিল্লা   

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১৮:৫৮ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



'করোনার ক্ষতি পুষিয়ে নিতে সরকার সম্মিলিতভাবে কাজ করছে'

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (এলজিআরডি) মন্ত্রী তাজুল ইসলাম বলেছেন, কভিড-১৯ মোকাবেলায় দেশের ক্ষতিগ্রস্ত অর্থনীতিকে দ্রুত পুষিয়ে নিতে সম্মিলিতভাবে কাজ করছে সরকার। পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে আমরা উন্নয়নকাজ সামাজিক দূরত্ব মেনে আবার শুরু করেছি। করোনার মাত্রা কিছুটা কমে এসেছে। পৃথিবীর মতো আমাদের দেশেও অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সে ক্ষতি পুষিয়ে নিতে সম্মিলিতভাবে কাজ করছে সরকার। আশা করছি উন্নয়নকাজের স্বাভাবিকতা ফিরে আসবে।

শনিবার (১৯ সেপ্টম্বর) দুপুরে কুমিল্লায় বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন একাডেমি (বার্ড) এর ৫৩তম বার্ষিক পরিকল্পনা সম্মেলনের উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের একথা বলেন মন্ত্রী।

এলজিআরডি মন্ত্রী আরো বলেন, করোনা পৃথিবীর জন্য নতুন অভিজ্ঞতা। করোনাভাইরাসের প্রভাব ছড়িয়ে পড়ার শুরু থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার দেশের মানুষের ভাগ্য উন্নতির অব্যাহত অগ্রযাত্রা যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয়, সেই জন্য সার্বক্ষণিক নির্দেশনা প্রদান করেছেন। এ ছাড়া স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের অধিনস্থ প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ওয়াসা করোনায় লকডাউন থাকা সত্ত্বেও নিয়মিত পানি সরবরাহ করতে সক্ষম হয়েছেন। কারণ এই সময়ের জন্য পানি অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। পানির পাশাপাশি মন্ত্রণালয় থেকে পরিস্কার পরিচ্ছন্নতার জন্য ইউনিয়ন পর্যায় প্রর্যন্ত শতশত কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। চলমান করোন মোকাবেলায় মেম্বার, চেয়ারম্যান, উপজেলার চেয়ারম্যান, স্থানীয় সংসদ সদস্য এবং জেলা পরিষদের সদস্যসহ সবাই জনগনের পাশে গিয়ে দাঁড়িয়েছে।

পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের সচিব রেজাউল আহসানের সভাপতিত্বে এলজিআরডি মন্ত্রী আরো বলেন, কুমিল্লা শহরে পানি সরবরাহের জন্য একটি বড় উন্নয়ন প্রকল্প হাতে নিয়েছে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়। চাঁদপুর মেঘনা নদীতে একটি ট্রিটমেন্ট প্লান করা হচ্ছে। সেখান থেকে কুমিল্লার শহরসহ আশপাশের উপজেলাগুলোতে পানি সরবরাহ করা হবে। এ ছাড়া কুমিল্লায় ক্ষতিগ্রস্ত কিছু রাস্তাঘাট রয়েছে সেগুলো নির্মাণের জন্য প্রকল্প নেওয়া হচ্ছে। কুমিল্লাকে এগিয়ে নিতে সম্মিলিতভাবে কাজ করতে হবে।

এর আগে বার্ডে ময়নামতি অডিটরিয়ামে অনুষ্ঠিত পরকিল্পনা সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কুমিল্লা সদর আসনের সংসদ সদস্য আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার, সিরডাপের মহাপরিচালক ড. চার্ডস্যাক ভিরাপাত। আরো বক্তব্য রাখেন বার্ডের অতিরিক্ত মহাপরিচালক ড. মাসুদুল হক চৌধুরী, পরিচালক প্রশাসন ড. শফিকুর রহমান ও স্বাগত বক্তব্য রাখেন বার্ডের পরিচালক প্রশিক্ষণ মোহাম্মদ আবদুল কাদের প্রমুখ।

দুই দিনব্যাপী এই পরিকল্পনা সম্মেলনে সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের, বিভাগ ও আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানের উচ্চ ও মধ্য পর‌্যায়ের ১০৫ জন প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করেন।

বার্ড বর্তমান সরকারের রাজস্ব খাতের অন্তর্ভুক্ত লালমাই ময়নামতি প্রকল্প, বার্ড ভৌত সুবিধাদি উন্নয়ন প্রকল্প এবং সিভিডিপি ৩য় পর্যায়ের প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে। এ ছাড়া বার্ড নিজস্ব অর্থায়নে ১৩টি প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা