kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৬ কার্তিক ১৪২৭। ২২ অক্টোবর ২০২০। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

ওরা আমার লিচু গাছ কাটেনি, সন্তানের ভবিষ্যৎ নষ্ট করে দিয়েছে

আলমডাঙ্গা (চুয়াডাঙ্গা) প্রতিনিধি   

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১৮:০৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ওরা আমার লিচু গাছ কাটেনি, সন্তানের ভবিষ্যৎ নষ্ট করে দিয়েছে

'ওরা আমার লিচু গাছ কাটেনি, আমার সন্তানদের ভবিষ্যৎ শেষ করে দিয়েছে'। আলমডাঙ্গা উপজেলার হাড়ুকান্দি গ্রামের মৃত সেকেন্দার আলীর ছেলে রবিউল ইসলাম ফুঁফিয়ে ফুঁফিয়ে কেঁদে উপরোক্ত খেদোক্তি করছিলেন। গতকাল শুক্রবার রাতে তার এক বিঘা জমির লিচু গাছের বাগানের ফলধরা সব গাছ কেটে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। গত দুই বছর ধরে বাগানের ৩০টি সোমত্ত লিচু গাছ ফল দিচ্ছিল।

জানা যায়, হাড়ুকান্দি গ্রামের দরিদ্র ফলচাষি রবিউল ইসলাম হাড়ুকান্দি-বাগুন্দার মাঠে এক বিঘা জমিতে লিচু বাগান করেছেন। প্রায় পাঁচ বছর আগে তিনি ওই জমিতে ৩০টি লিচু গাছ রোপণ করেন। গত দুই বছর ধরে গাছগুলোতে ফল ধরছে। গত বছর ৩০টি গাছের লিচু ৬০ হাজার টাকায় বিক্রি করেছিলেন। এবছর দেড় লাখ টাকায় বিক্রির প্রত্যাশা ছিল। রাতের আঁধারে গাছগুলো কেটে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

তবে কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে তা বলতে পারছেন না ফলচাষি রবিউল। কারো সাথে তার শত্রুতাও নেই জানিয়ে বলেন, যেই করুক, একা করেনি। একা বড় বড় লিচু গাছ কাটা সম্ভব না। ৫-৭ জন মিলে কেটেছে। এ ঘটনায় ফলচাষি আলমডাঙ্গা থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা