kalerkantho

সোমবার । ১৩ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০। ১০ সফর ১৪৪২

এলাকায় শোকের মাতম

বাসচাপায় স্ত্রী-ছেলেসহ প্রশিক্ষকের মৃত্যু, রেখে গেলেন শিশু

উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি   

১৩ আগস্ট, ২০২০ ১৯:১১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাসচাপায় স্ত্রী-ছেলেসহ প্রশিক্ষকের মৃত্যু, রেখে গেলেন শিশু

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত সমাজসেবা বিভাগের সিনিয়র কারিগরি প্রশিক্ষক (টিআই) আকবর হোসেনের বাড়িতে শোকের মাতম চলছে। বৃহস্পতিবার সকালে কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার কাঁঠালবাড়ি ইউনিয়নের আরডিআরএস বাজারে কুড়িগ্রাম-রংপুর সড়কে এ মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে। এতে আকবর হোসেন (৫৮), তার স্ত্রী বিলকিছ বেগম (৪৫), ছেলে বয়েজিদ হোসেন বেলাল (১৬) এবং প্রাইভেটকার চালক সোহেল মিয়া (৩৫) নিহত হন।

এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা গেছে, নিহত আকবর আলী চাকরির সুবাদে নরসিংদীর জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরে সিনিয়র কারিগরি প্রশিক্ষক (টিআই) হিসেবে কর্মরত ছিলেন। নতুন বাড়ি করার জন্য স্বপরিবারে প্রাইভেটকার যোগে রওনা দেন। পথিমধ্যে কুড়িগ্রাম-রংপুর মহাসড়কের কাঁঠালবাড়ি আরডিআরএস বাজারের কাছে পৌঁছালে আকস্মিকভাবে বিআরটিসি’র একটি বাসের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে স্ত্রী-সন্তানসহ মারা যান তিনি। এ সময় প্রাইভেটকারের চালকও মৃত্যু বরণ করেন।

পরিবারটির একমাত্র জীবিত কন্যা আয়শা সিদ্দিকা আশামনি (৯) গুরুতর আহত অবস্থায় এখন রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) রেদওয়ান ফেরদৌস সজীব মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

কুড়িগ্রাম সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আনোয়ারুল ইসলাম হতাহতের ঘটনা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনার পরপরই বিআরটিসি বাসের চালক পালিয়ে গেছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা