kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৬ আশ্বিন ১৪২৭ । ১ অক্টোবর ২০২০। ১৩ সফর ১৪৪২

বিয়ানীবাজার থানা

৭ মাসে ৪০০ ডিজিটাল অপরাধের অভিযোগ!

বিয়ানীবাজার (সিলেট) প্রতিনিধি   

১২ আগস্ট, ২০২০ ১৫:২৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



৭ মাসে ৪০০ ডিজিটাল অপরাধের অভিযোগ!

প্রতিকী ছবি

বিয়ানীবাজারে উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে ডিজিটাল-প্রযুক্তিগত অপরাধ। খুব প্রাসঙ্গিক কারণেই ডিজিটাল প্রযুক্তির প্রসারের সঙ্গে সঙ্গে এখন ডিজিটাল অপরাধের প্রসারও ঘটছে। প্রযুক্তি ব্যবহার করে হুমকি, যৌন হয়রানি, অশ্লীল কথোপকথন, মানসিক হয়রানি, প্রতারণা, ভয়-ভীতি প্রদর্শনসহ আধুনিক নানা অপরাধ সংঘটিত হচ্ছে। এতে সকল মহলে বাড়ছে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা। এমন হয়রানির শিকার হয়ে চলতি বছরেই বিরানীবাজার থানায় করা হয়েছে ৪০০ সাধারণ ডায়েরি।

জানা গেছে, এসকল অপরাধে বেশি জড়িত এলাকার কিশোর ও যুবরা। জড়িতদের সিংহভাগ স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী।

এসব বিষয়ে পূর্ব মুড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. খালেদ আহমদ বলেন, পারিবারিক সতর্কতা প্রযুক্তিগত অপব্যবহার বন্ধ করতে পারে। তাছাড়া সরকারি বিধিমালাও অনেক ক্ষেত্রেও মোবাইলের অপব্যবহার নিয়ন্ত্রণে সহায়ক হতে পারে।

বিভিন্ন সূত্র জানায়, পূর্ব বিরোধের অংশ হিসেবে একজন অন্যজনকে ফাঁসাতে মোবাইল ফোনে নামে-বেনামে মিথ্যা হুমকিও প্রদান করে। চলতি বছরের পহেলা জানুয়ারি থেকে ৩১ জুলাই পর্যন্ত বিয়ানীবাজার থানায় মোবাইল ফোনে হুমকি, ভয়-ভীতি প্রদর্শন, মহিলাদের মানসিক হয়রানি জনিত বিষয় উল্লেখ করে প্রায় ৪ শতাধিক সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে। সবগুলো সাধারণ ডায়েরি বেশ গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করেছে পুলিশ।

এ সংক্রান্ত অভিযোগ পেলে দ্রুত আইনগত ব্যবস্থার কথা জানিয়ে ওসি অবণী শংকর কর জানান, আমরা প্রযুক্তির মাধ্যমে অপরাধিকে শনাক্ত করার চেষ্টা করি। চলতি বছরের বিভিন্ন সময়ে প্রায় এক ডজন যুবককে মোবাইল ফোন সংক্রান্ত নানা অভিযোগের জের ধরে থানা পুলিশ আটক করে। পরবর্তী সময়ে মুচলেকার মাধ্যমে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা