kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৬ আশ্বিন ১৪২৭ । ১ অক্টোবর ২০২০। ১৩ সফর ১৪৪২

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ৫ হাজার কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা

নিজস্ব প্রতিবেদক, গাজীপুর   

৯ আগস্ট, ২০২০ ১৫:৩৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ৫ হাজার কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ২০২০-২০২১ অর্থবছরের জন্য পাঁচ হাজার সাত কোটি ২১ লাখ ২৮ হাজার টাকার বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে স্বাস্থ্যবিধি মেনে আজ রবিবার নগরভবন মিলনায়তনে আনুষ্ঠানিকভাবে বাজেট ঘোষণা করেন মেয়র মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম। প্রস্তাবিত বাজেটে ব্যয় ধরা হয়েছে চার হাজার ৫৬৭ কোটি ১১ লাখ ৭৮ হাজার টাকা।

বাজেট ঘোষণার সময় মেয়র মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, করোনাভাইরাস মহামারির কারণে ২০১৯-২০২০ অর্থবছরে রাজস্ব আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়নি। তহবিলের সীমাবদ্ধতা থাকা সত্ত্বেও রাজস্ব তহবিল থেকে রাস্তাঘাট নির্মাণ এবং রাস্তা মেরামতের জন্য সরকারি থোক বরাদ্দ ও রাজস্ব তহবিল থেকে প্রায় ৩০০ কোটি টাকার উন্নয়ন প্রস্তাব রাখা হয়েছে।

তিনি বলেন, বিভিন্ন জোনের প্রধান সংযোগ সড়ক প্রশস্তকরণসহ নর্দমা ও ফুটপাত নির্মাণ শীর্ষক প্রকল্পে তিন হাজার ৮২৮ কোটি টাকার রাস্তা ও ড্রেন নির্মাণ কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে। প্রকল্পের ভূমি অধিগ্রহণের জন্য টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে। জনগণের চলাচলের জন্য বিভিন্ন রাস্তা প্রশস্ত করতে গিয়ে অনেকে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে ২০১৯-২০২০ অর্থবছরে প্রায় ৬০ কোটি টাকা অনুদান প্রদান করা হয়েছে। ২০২০-২০২১ অর্থবছরে ক্ষতিগ্রস্তদের অনুদান বাবদ ১০০ কোটি টাকা ব্যয়ের প্রস্তাব রাখা হয়েছে। গাজীপুরের প্রায় দেড় হাজার মসজিদের খতিব, ইমামদের জন্য বছরে ১৪ হাজার টাকা করে সম্মানী প্রদানেরও উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

মেয়র বলেন, আগামী তিন বছরের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনায় ২০২০-২০২৩ অর্থবছরের বাজেটে হাসপাতালের জন্য অ্যাম্বুল্যান্স ক্রয়ে পাঁচ কোটি টাকা, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠা করতে ৫০ কোটি টাকা, নগরীর আটটি জোনে কবরস্থান নির্মাণের জন্য ৫০ কোটি টাকা, গুণীজনদের সম্মাননা বাবদ পাঁচ কোটি টাকা এবং সাংবাদিকদের পেশাগত উন্নতি ও সার্বিক মঙ্গলার্থে তিন কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে।

বাজেট ঘোষণার আগে কাউন্সিলরদের নিয়ে সভা করেন মেয়র। ওই সভায় ২০২০-২০২১ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট চূড়ান্ত করা হয়। বাজেট অধিবেশনে সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আমিনুল ইসলাম, অর্থ ও সংস্থাপন সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটির সভাপতি কাউন্সিলর আব্বাস উদ্দিন খোকন ও তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মজিবুর রহমান কাজল বক্তব্য রাখেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা