kalerkantho

শুক্রবার। ১৭ আশ্বিন ১৪২৭। ২ অক্টোবর ২০২০। ১৪ সফর ১৪৪২

জমি দখল ও জলাবদ্ধতার প্রতিবাদে রূপগঞ্জে পেট্রোমেক্স এলপিজির বিরুদ্ধে মানববন্ধন

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি   

৮ আগস্ট, ২০২০ ২০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জমি দখল ও জলাবদ্ধতার প্রতিবাদে রূপগঞ্জে পেট্রোমেক্স এলপিজির বিরুদ্ধে মানববন্ধন

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে সাধারণ মানুষের জমি না কিনে জোর পূর্বক জমি দখল ও সরকারি ক্যানেল ভরাট করে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি করার প্রতিবাদে পেট্রোমেক্স এলপিজি নামে একটি কোম্পানির বিরুদ্ধে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। 

শনিবার বিকেলে উপজেলার দাউদপুর ইউনিয়নের কলিঙ্গা এলাকায় এ মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয়। 

মানববন্ধনে ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করে বলেন, কলিঙ্গা এলাকায় গড়ে উঠা পেট্রোমেক্স এলপিজি নামে একটি কোম্পানিটি সাধারণ মানুষের জমি না কিনেই জোর পূর্বক দখল করছে। দখলের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করলেই মামলার হামলার শিকার হতে হয় সাধারণ মানুষকে। এতে করে সাধারণ মানুষের ভোগান্তির যেন শেষ নেই। 

পেট্রোমেক্স এলপিজি নামে একটি কোম্পানিটি কলিঙ্গার এলাকার আব্দুর রবের পৌনে ৪ শতাংশ, আতাহার আলী ২ শতাংশ, আব্দুল কাদেরের ৩ শতাংশ, তোহিদুরের ২৮ শতাংশ, ফাতেমা আক্তারের ৪ শতাংশ, সেফরা জায়েদার ৬ শতাংশ, আমিনুল ইসলামের ৪ শতাংশ, আওলাদের ১৪ শতাংশ, কবির মিয়ার ৬ শতাংশ, কিবরিয়ার ১৪ শতাংশ জমি না কিনেই জোর পূর্বক দখল করে রেখেছে বলে অভিযোগ করেন জমির মালিকরা। 

এছাড়া পেট্রোমেক্স এলপিজি নামে একটি কোম্পানিটি সরকারি ক্যানেল ভরাট করে দখল করায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। এতে করে প্রায় শতাধিক পরিবার ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন। এসবের প্রতিবাদ করায় ওই কোম্পানির মালিকপক্ষ নিরীহ কৃষক আকরাম ও আওলাদ নামের দুই জনকে জেল খাটিয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে। 

ভুক্তভোগীদের দাবি, তাদের যেসকল জমি পেট্রোমেক্স এলপিজি কোম্পানি না কিনে দখল করা হয়েছে, সেসকল জমি ন্যয্য মূল্যের মাধ্যমে জমি মালিকদের কাছ থেকে ক্রয় করতে হবে এবং সরকারি ক্যানেল দখলমুক্ত করে জলাবদ্ধতা নিরসন করতে হবে।  

এ ব্যাপারে পেট্রোমেক্স এলপিজির ডেপুটি জেনার‌্যাল ম্যানেজার ইঞ্জনিয়ার তাজুল ইসলাম বলেন, এলাকাবাসীর অভিযোগটি সঠিক নয়। আমরা জমি ক্রয় করেই কোম্পানির সকল কার্যক্রম করে যাচ্ছি। জলাবদ্ধতার বিষয়ে কোম্পানি দায়ী নয় বলেও তিনি দাবি করেন। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা