kalerkantho

শুক্রবার। ১৭ আশ্বিন ১৪২৭। ২ অক্টোবর ২০২০। ১৪ সফর ১৪৪২

করোনার নমুনা সংগ্রহের নামে ননদকে ভাবির হত্যাচেষ্টা!

রাণীনগর (নওগাঁ) প্রতিনিধি   

৮ আগস্ট, ২০২০ ১৮:১৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



করোনার নমুনা সংগ্রহের নামে ননদকে ভাবির হত্যাচেষ্টা!

নওগাঁর রাণীনগরে করোনাভাইরাসের নমুনা সংগ্রহের কথা বলে এক গৃহবধূকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় বর্ণা নামের এক ভুয়া নারী স্বাস্থ্যকর্মীকে গ্রামবাসী আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশের নিকট সোপর্দ করেছে। আজ শনিবার দুপুরে উপজেলার মিরাট ইউনিয়নের আতাইকুলা পাল পাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, বর্ণা অভিনব কায়দায় ওই বাড়িতে প্রবেশ করে গৃহবধূ প্রতিমা রাণীকে গলা টিপে হত্যার চেষ্টা করে। প্রতিমার চিৎকারে প্রতিবেশিরা এগিয়ে এসে ওই ভুয়া স্বাস্থ্যকর্মীকে আটক করে পুলিশে দেয়। এসময় তার ব্যাগে দুটি হ্যান্ড গ্লোবস, কেরোসিন তেল ভর্তি একটি বোতল, গ্যাস লাইট, সুপার গ্লু আঠা ও রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের একটি পরিচয়পত্র ছিল বলে জানায় স্থানীয়রা। আটককৃত বর্ণা একই উপজেলার বেতগাড়ী গ্রামের গোবিন্দ পালের মেয়ে। 

জানা গেছে, আজ দুপুর আনুমানিক ১টায় আতাইকুলা পাল পাড়া গ্রামের সুপদ পালের স্ত্রী প্রতিমা রাণীর বাড়িতে বর্ণা (২৬) নামের মাস্ক পড়া এক ভুয়া নারী স্বাস্থ্যকর্মী করোনাভাইরাসের নমুনা সংগ্রহ করতে বাড়িতে প্রবেশ করে। এসময় প্রতিমা রাণীর স্বামী বাড়িতে না থাকার সুবাদে ঘরে বসে বিভিন্ন রসালো গল্পের একপর্যায়ে তার করোনাভাইরাস আছে এমন কথা বলে প্রতিমার দুই কপি ছবি ও ভোটার আইডি কার্ডের ফটোকপি দরকার বলে জানালে প্রতিমার ভাসুরকে পার্শ্ববর্তী বাজারে পাঠায়। এমন সুযোগে ওই ভুয়া স্বাস্থ্যকর্মী বর্ণা প্রতিমা রাণীর গলাটিপে হত্যার চেষ্টা করে। ধস্তা ধস্তির একপর্যায়ে তার আত্ম চিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এলে বর্ণা দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে পালানোর চেষ্টা করে। এসময় গ্রামবাসী তাকে আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশের নিকট সোর্পদ করে।

রাণীনগর থানার এসআই মো. সেলিম হোসেন জানান, খবর পেয়ে ওসির নির্দেশে আতাইকুলা গ্রামে গিয়ে বর্ণা নামের ওই নারীকে থানায় নিয়ে আসি। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, বর্ণা নাকি প্রতিমা রাণীর ভাইয়ের বউ ছিল। তবে কি কারণে এই এই বাড়িতে তিনি আসলেন এটি খতিয়ে দেখা হবে। তদন্ত সাপেক্ষে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা