kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৪ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০। ১১ সফর ১৪৪২

বঙ্গোপসাগরে ট্রলারডুবি : ৪ দিন ধরে নিখোঁজ ৩ জেলে

আনোয়ারা (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি   

৮ আগস্ট, ২০২০ ১৫:৪৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বঙ্গোপসাগরে ট্রলারডুবি : ৪ দিন ধরে নিখোঁজ ৩ জেলে

বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরতে গিয়ে ট্রলারডুবির ঘটনায় ৪ দিন ধরে নিখোঁজ ৩ জেলে। গত মঙ্গবার (৪ আগস্ট) আনোয়ারা উপজেলার গহিরা থেকে ছেড়ে যাওয়া ট্রলারটি বুধবার সকালে সাগরে সাঙ্গু গ্যাস ফিল্ডের অদূরে ১২ মাঝি ও জেলেসহ ডুবে যায়। এসব জেলেদের পরিবারে চলছে শোকের মাতম। জেলেদের উদ্ধারে কোনো অগ্রগতি নেই বলে জানান নিখোঁজ জেলেদের পরিবার।

স্থানীয় সূত্রে জানাযায় , আনোয়ারা উপজেলার গহিরা গ্রামের ইলিয়াছ ও জুইঁদন্ডী এলাকার আবুল হোসেনের মালিকানাধীন একটি মাছ ধরার ট্রলার ১২ মাঝি-মাল্লা নিয়ে গত মঙ্গলবার সকালে সাগরে মাছ ধরতে যায়। বুধবার সকাল ৮টার দিকে ঝড়ের কবলে পরে ডুবে যায় ট্রলারটি। এ সময় ট্রলারে থাকা ৯ জনকে জীবিত উদ্ধার করতে সক্ষম হন পার্শ্ববর্তী ট্রলারের জেলেরা। তবে ৩ জন জেলে এখন পর্যন্ত নিখোঁজ আছেন।

নিখোঁজ জেলেরা হলেন- আনোয়ারা উপজেলার জুঁইদন্ডী ইউনিয়নের খুরুসকুল গ্রামের মৃত আবুল কাশেমের ছেলে মোহাম্মদ রফিক (৩৫), একই ইউনিয়নের জুঁইদন্ডী গ্রামের মোহাম্মদ বাঁশিরের ছেলে কফিল উদ্দিন (৩০)। অপর জন বাঁশখালী উপজেলার হাটখালী এলাকার বাসিন্দা। তবে তার নাম জানা যায়নি।
 
কফিলের স্ত্রী কুনছুমা বেগম (২৭) জানান, পরিবারের ৬ সদস্যের মধ্যে স্বামীই একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি। বোটের মালিক একবার এসে দেড় হাজার টাকা দিয়ে যায়, আর কেউ তাদের কোন খোঁজ খবর নেয়নি। নিজের কোন বাড়ি ঘর নেই, ভাড়া বাসায় থাকে। ছোট ছেলে মেয়ে ও বৃদ্ধ মা-দাদাকে নিয়ে এখন তারা দিশেহারা।

নিখোঁজ জেলে রফিকের পরিবারে স্ত্রী ও ২ ছেলে ২ মেয়ে রয়েছে বলে জানাযায়। এসব পরিবারে চলছে শোকের মাতম।

তবে ডুবে যাওয়া ট্রলারের মালিক আবুল হোসেনের দুইটি মুঠোফোন বন্ধ থাকায় তার সাথে কথা বলা সম্ভব হয়নি।

জুঁইদন্ডী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোরশেদুল আলম চৌধুরী খোকা জানান, নিখোঁজ জেলেদের উদ্ধারে নৌ-বাহিনীর সহযোগিতা নেওয়া প্রয়োজন। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলো অত্যন্ত অসহায়। এসব পরিবারের জন্য মৎস্য অফিস থেকে অর্থ-সহায়তা প্রদান করতে হবে।

আনোয়ারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দুলাল মাহমুদ জানান, সাগরে ট্রলারডুবিতে জেলে নিখোঁজের ঘটনায় ট্রলারের মালিক থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছে। পুলিশ ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের বাড়িতে গিয়ে স্বজনদের সাথে কথা বলে এসেছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা