kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৬ আশ্বিন ১৪২৭ । ১ অক্টোবর ২০২০। ১৩ সফর ১৪৪২

চাচা হত্যার প্রতিশোধ

নান্দাইলে কাটা পা ৪ দিন পর ঈশ্বরগঞ্জে উদ্ধার!

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, ময়মনসিংহ   

৭ আগস্ট, ২০২০ ২০:৩৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নান্দাইলে কাটা পা ৪ দিন পর ঈশ্বরগঞ্জে উদ্ধার!

ময়মনসিংহের নান্দাইলে চাচাকে হত্যার প্রতিশোধ নিতে আসামির পা কেটে ব্যাগে ভরে নিয়ে যান নিহতের ভাতিজা ও তাঁর দলবল। এ ঘটনার চারদিন পর আজ শুক্রবার সকালে সেই কাটা পা পাওয়া যায় পাশের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার মাইবাগ ইউনিয়নের ভাষা গকুলনগর গ্রামের জনৈক হাবিবুর রহমানের পুকুর পাড়ে। খবর পেয়ে কর্তিত পা উদ্ধার করে ফরেন্সিক বিভাগে পাঠিয়েছে পুলিশ।

অন্যদিকে পা কাটার ঘটনায় হত্যাচেষ্টায় ২৬ জনকে আসামি করে মামলা হলে গতকাল বৃহস্পতিবার ময়মনসিংহ একটি আদালত ২০ আসামিকে জামিন দেন।

পুলিশ ও পরিবারের লোকজন জানান, আহত ওই ব্যক্তি হচ্ছেন উপজেলার মোয়াজ্জেমপুর ইউনিয়নের কতুবপুর গ্রামের মো. নুরুল ইসলামের ছেলে মো. শামীম ভুঁইয়া (৩৮)। গত ২০১৯ সালের ১ ফেব্রুয়ারি ওই ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. মোর্শেদ আলীকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। ওই ঘটনায় আসামি শামীম। ওই হত্যার প্রতিশোধ নিতে বেশ কয়েক দফা হামলার চেষ্টাও চালায় নিহত মোর্শেদের লোকজন। ওই হত্যার প্রতিশোধ নিতেই গত সোমবার রাতে শামীমের পা কেটে ব্যাগে করে নিয়ে যায় নিহত মোর্শেদের ভাতিজা জাহাঙ্গীর।

শামীম ভূঁইয়াকে গুরুতর আহত অবস্থায় সোমবার রাতেই ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তাঁর অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় পরদিন জেলা শহরের ট্রমা সেন্টারে নিয়ে ভর্তি করানো হয়। এরমধ্যে পুলিশ কাটা পা সন্ধান করলেও কোথাও পায়নি। এ অবস্থায় গতকাল শুক্রবার মামলার বাদী খবর পান তাঁর ভাইয়ের কাটা পা পড়ে রয়েছে ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার মাইজবাগ ইউনিয়নের ভাষা গকুলনগর গ্রামের একটি পুকুর পাড়ে। সেখান থেকে পঁচা গলিত কাটা পা উদ্ধার করে থানায় আনে পুলিশ।

মামলার বাদী আহত শামীম ভূঁইয়ার ভাই রুবেল ভূঁইয়া জানান, তাঁর ভাইয়ের অবস্থা এখনও শঙ্কামুক্ত নয়। এর মধ্যে অধিকাংশ আসামির জামিন পাওয়ায় ভাইয়ের অবস্থা আরও খারাপের দিকে যাওয়ার পাশপাশি এক ধরনের ভীতিকর অবস্থায় থাকতে হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা