kalerkantho

রবিবার । ১২ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০। ৯ সফর ১৪৪২

নিখোঁজের তিনদিন পর পর্যটকের লাশ উদ্ধার

ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি   

৬ আগস্ট, ২০২০ ২০:০৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নিখোঁজের তিনদিন পর পর্যটকের লাশ উদ্ধার

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে মেঘনা নদীতে গোসল করতে গিয়ে নিখোঁজ হওয়া মো. মাকমুদুল ইসলাম (১৮) নামে এক পর্যটকের ভাসমান লাশ উদ্ধার করেছে ভৈরব নৌ থানা পুলিশ।  বৃহস্পতিবার বিকেলে নরসিংদী জেলার রায়পুরা উপজেলার তুলাতলি এলাকায় মেঘনা নদী থেকে ওই পর্যটকের মৃত দেহ উদ্ধার করা হয়। নিহতের পরিবারের আবেদনের প্রেক্ষীতে ময়নাতদন্ত ছাড়া সন্ধা ৭টায় লাশ স্বজনদের হাতে হস্থান্তর করা হয়েছে। তিনি নরসিংদী জেলার মনহরদী উপজেলার চক মাধবদী গ্রামের আব্দুল কাদির মিয়ার ছেলে।

জানা যায়, গত মঙ্গলবার দুপুরে ঈদ আনন্দ উপভোগ করতে মাকমুদুল ও তার ৬/৭ জন বন্ধু মিলে ভৈরব মেঘনা ত্রিসেতু এলাকায় বেড়াতে আসেন। বেড়ানোর এক পর্যায়ে বিকেল চারটার দিকে মেঘনা নদীতে গোসলে নামেন তারা। গোসলের সময় সাতাঁর কাটার এক পর্যায়ে পানির তীব্র স্রোতে মো. মাকমুদুল ইসলাম তলিয়ে যায়। এসময় তার সাথে সাথে থাকা বন্ধুদের চিৎকারে আশেপাশের লোকজন এগিয়ে আসলেও তাকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। 

পরে খবর পেয়ে ভৈরব ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার কার্যক্রম শুরু করে । কিন্তু পানির স্রোত ও গভীরতা বেশী থাকায় মাকমুদুলকে উদ্ধার করতে ব্যর্থ হন ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা। পরে কিশোরগঞ্জ জেলা ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিলে সন্ধা ৬টার দিকে পাঁচ সদস্যের একটি ডুবুরি দল উপস্থিত হয়ে কয়েক ঘণ্টা উদ্ধার তৎপরতা চালানো পরও পানির নিচে তলিয়ে যাওয়া ওই পর্যটকের সন্ধান পাওয়া যায়নি।

পরবর্তীতে বৃহস্পতিবার বিকেল পাচঁটার দিকে নরসিংদী জেলার রায়পুরা উপজেলার তুলাতলি এলাকায় মেঘনা নদী থেকে একটি লাশ ভাসতে দেখে পুলিশে খবর দেন স্থানীয়রা। পরে ভৈরব নৌ থানার ওসি মো. তরিকুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্স ও স্থানীয়দের সহায়তায় লাশটি উদ্ধার করেন। খবর পেয়ে তিনদিন আগে নিখোঁজ হওয়া মো. মাকমুদুল ইসরাম এর বাবা আব্দুল কাদির ও চাচাতো ভাই তার লাশ শনাক্ত করেন। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা