kalerkantho

শনিবার । ১১ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০। ৮ সফর ১৪৪২

আত্মসমর্পণের জন্য ওসি প্রদীপ কক্সবাজারের পথে

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম    

৬ আগস্ট, ২০২০ ১৪:২৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আত্মসমর্পণের জন্য ওসি প্রদীপ কক্সবাজারের পথে

কক্সবাজারের টেকনাফ থানার বহুল আলোচিত ও বিতর্কিত ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ আত্মসমর্পণের জন্য কক্সবাজারের পথে রওনা দিয়েছেন। এর আগে তিনি আত্মসমর্পণের ইচ্ছা প্রকাশ করে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশকে অনুরোধ জানালে মহানগর পুলিশ তাঁকে হেফাজতে নিয়ে বিশেষ ব্যবস্থায় কক্সবাজারে পাঠানোর উদ্যোগ নেয়। 

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (অপরাধ ও অভিযান) শ্যামল কুমার নাথ। কালের কণ্ঠ'র সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, পুলিশ পরিদর্শক প্রদীপ কুমার দাশ অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি হন। সেখান থেকে তিনি আদালতে আত্মসমর্পণের ইচ্ছা প্রকাশ করেন। পরে মহানগর পুলিশ কমিশনার মো. মাহাবুবর রহমানের নির্দেশে নিরাপত্তাব্যবস্থা নিশ্চিত করে তাঁকে কক্সবাজার আদালতে পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

একই বিষয়ে অতিরিক্ত কমিশনার (প্রশাসন ও অর্থ) আমেনা বেগম কালের কণ্ঠকে বলেন, প্রদীপ কুমার দাশ বুধবার গভীর রাতে অসুস্থতাজনিত কারণে চট্টগ্রাম মহানগরীর দামপাড়ার বিভাগীয় পুলিশ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি জানতে পারেন, তাঁর নামে একটি মামলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে তিনি পুলিশ কমিশনার মো. মাহাবুবর রহমানের কাছে ইচ্ছা প্রকাশ করেন- ওই মামলায় তিনি সংশ্লিষ্ট আদালতে গিয়ে আত্মসমর্পণ করবেন। প্রদীপ কুমার দাশের ইচ্ছা অনুযায়ী, কমিশনার মহোদয় তাঁকে নিরাপত্তা নিশ্চিত করে কক্সবাজারে পাঠানোর নির্দেশনা দেন। এই নির্দেশনা অনুযায়ী দামপাড়ার পুলিশ লাইনসের বিভাগীয় হাসপাতাল থেকে পুলিশের একটি দল তাঁকে নিয়ে কক্সবাজার রওনা করেছে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, প্রদীপকে সিএমপি গ্রেপ্তার বা আটক করেনি, হেফাজতে নিয়েছে এই কথা বলাও ঠিক হবে না। শুধু ওনার ইচ্ছা অনুযায়ী নিরাপত্তা নিশ্চিত করে কক্সবাজার পৌঁছানোর ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

প্রসংগত, গত ৩১ জুলাই রাত ৯টায় টেকনাফের বাহারছড়া এলাকায় কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কের শামলাপুর এলাকায় পুলিশের তল্লাশিচৌকিতে পুলিশ পরিদর্শক মোহাম্মদ লিয়াকত আলীর গুলিতে মারা যান অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা রাশেদ খান। এই ঘটনায় বুধবার কক্সবাজারের আদালতে সিনহার বোন বাদী হয়ে ওসি প্রদীপ ও পরিদর্শক লিয়াকত আলীসহ ৯ পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন। এই মামলায় আত্মসমর্পণ করতেই ওসি প্রদীপ এখন কক্সবাজারের পথে রয়েছেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা