kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৪ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০। ১১ সফর ১৪৪২

১৪ বছর পর মায়ের কোলে ফিরল প্রতিবন্ধী হেলাল

গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি   

৫ আগস্ট, ২০২০ ১৪:৪১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



১৪ বছর পর মায়ের কোলে ফিরল প্রতিবন্ধী হেলাল

নাটোরের গুরুদাসপুরে ১৪ বছর পর মায়ের কোলে ফিরে এলো মানসিক প্রতিবন্ধী হেলাল (৪০)। গুরুদাসপুর পৌর সদরের চাঁচকৈড় মধ্যমপাড়া মহল্লায় হেলালের বাড়ি- একথা জানতে পেরে বরিশালের ব্যবসায়ী মো. খোকনের সহযোগিতায় নাটোরের ব্যবসায়ী তারেক মিয়া হেলালকে বরিশাল থেকে গত বুধবার তার মায়ের কাছে ফিরিয়ে দেন। 

জানা যায়, মৃত আক্কাছ মন্ডলের ছেলে হেলাল। তার মা সাজেদা বেওয়া ঝি-গিরি করে কোনোমতে জীবনযাপন করতেন। ছোটবেলা থেকেই হেলাল খুব ভদ্র কিন্তু মানসিক রোগী। যেখানে সেখানে ঘুরে বেড়াত। বাড়ি থাকে না, আবার আসে। এভাবে ১৪ বছর আগে সে হারিয়ে যায়। মা তাকে খোঁজ করে আর অহর্নিশি কেঁদে কেঁদে বুক ভাসায়। কিন্তু হেলাল আর ফেরে না।

বরিশাল কোর্টরোডের নাছির স্টোরের মালিক মো. খোকন জানান, প্রায় ১২ বছর আগে হেলাল বরিশালে আসে। পাগল বেশে ঘুরে বেড়ায়। ঘরোয়া ও আকাশ হোটেল থেকে তাকে মাঝে মধ্যে খাবার দেওয়া হতো। অনেকের টুকিটাকি কাজও করে দিত হেলাল। এভাবে এলাকায় তার সততা ও পরিচিতি বৃদ্ধি পায়। ব্যবসায়ী খোকন তাকে বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করতেন। হেলালও তার দোকানের জন্য পাইকারি মালামাল কিনে আনত। বিশ্বাসী হওয়ায় খোকন তাকে ভালোবাসতেন এবং বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করতেন।

একদিন খোকন জানতে পারেন হেলালের বাড়ি নাটোরের গুরুদাসপুরে। খোকনের সহযোগিতায় নাটোর সদরের ব্যবসায়ী মো. তারেক তাকে চাঁচকৈড় এলাকায় নিয়ে আসে। কিন্তু হেলাল তার বাড়ি চিনতে পারে না। তবে এলাকাবাসী তাকে চিনতে পারে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হেলালের ফিরে আসার খবরটি ভাইরাল হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা