kalerkantho

শনিবার । ১১ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০। ৮ সফর ১৪৪২

৬ জেলায় ৭ অপমৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক   

৪ আগস্ট, ২০২০ ১৫:৪৯ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



৬ জেলায় ৭ অপমৃত্যু

দেশের ৬ জেলায় সাতটি অপমৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। এদের মধ্য পানিতে ডুবে, বিদ্যুৎস্পর্শে, সাপের কামড়ে শিশুসহ ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া বাকি সবাই আত্মহত্যা করেছেন। আজ মঙ্গলবার ও গতকাল সোমবার বিভিন্ন সময়ে তাদের মৃত্যু হয়। কালের কণ্ঠের স্থানীয় প্রতিনিধিদের পাঠানো সংবাদে এ তথ্য জানা যায়।  

তেঁতুলিয়া : পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া উপজেলায় পুকুরের পানিতে ডুবে নয়ন হোসেন নামে দুই বছরের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার শালবাহান ইউনিয়নের বড় দলুয়াগছ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নয়ন হোসেন ওই এলাকার মোমিন হোসেনের ছেলে।

সখীপুর : টাঙ্গাইলের সখীপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে কামরুল হাসান (৫৫) নামের এক আওয়ামী লীগ নেতার মৃত্যু হয়েছে। গতকাল সোমবার দুপুর আড়াইটার দিকে উপজেলার বহেড়াতৈল ইউনিয়নের জয়াতৈল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে । নিহত কামরুল ইসলাম ১নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সহসভাপতি। বাড়ির পাশে জলাবদ্ধ মসজিদের মিটার থেকে বিদ্যুতের ছেড়া তারে অসাবধনতাবশত বিদ্যুৎষ্পৃষ্টে তার মৃত্যু হয়।

রামগড় : খাগড়াছড়ির রামগড়ে পৌরসভার ৪নম্বর ওয়ার্ডের মাস্টার পাড়া গ্রামে গলায় ফাঁস দিয়ে মোহাম্মদ রুবেল (২৮) নামে এক যুবক রাত ১১টায় নিজ বাড়ির পেছনে আত্মহত্যা করেন। এ বিষয়ে রামগড় থানার ওসি মো. শামসুজ্জামান বলেন, পারিবারিক কলহের কারণে এই আত্মহত্যা  প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। এই বিষয়ে রামগড় থানায় একটি অপমৃত‍্যুর মামলা হয়েছে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালের মর্গে  প্রেরণ করেছে।

ধামইরহাট : নওগাঁর ধামইরহাটে সাপের কামড়ে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। ঈদুল আজহার আগের দিন শুক্রবার রাতে তার কপালে বিষধর সাপ কামড় দেয়। ঈদের দিন সকালে তাকে প্রথমে জয়পুরহাট সদর হাসপাতাল এবং পরবর্তীতে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যায়।

ফকিরহাট : বাগেরহাটের ফকিরহাট সৈয়দ মহল্লা গ্রামে মাঠে কৃষি কাজ করার সময় হঠাৎ বজ্রপাতে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে কৃষক আব্দুল গফফার মোল্লা (৬০) বৈরি আবহাওয়ায় ধান চাষের জন্য জমি প্রস্তুত করতে যায়। বেলা ১১টায় বর্জ্রপাতে ঘটনাস্থলেই তাঁর মৃত্যু হয় বলে জানান নিহতের পরিবার।

গলাচিপা : পটুয়াখালীর গলাচিপায় পৃথক স্থানে আলাদা ঘটনায় একদিনে এক কিশোরী ও এক যুবক কীটনাশক পান করে আত্মহত্যা করেছে। ঘটনাটি দুটি ঘটেছে সোমাবার উপজেলার গজালিয়া ও চিকনিকান্দি ইউনিয়য়নে। পুলিশ জানায়, গলাচিপার গজালিয়া ইউনিয়নের ইচাদী গ্রামের শাহীন খানের মেয়ে অন্তরা (১৬) সোমবার বিকেলে পারিবারিক কলোহের জের ধরে বাড়িতে রাখা কীটনাশক (বিষ ট্যাবলেট) আত্মহত্যা করে। অপর দিকে, উপজেলার চিকনিকান্দি ইউনিয়নের কোটখালী গ্রামের রনি মোল্লার ছেলে রাসেল মোল্লা (২৫) পারিবারিক কলোহের জের ধরে কীটনাশক (বিষ ট্যাবলেট) খেয়ে আত্মহত্যা করেছে।

গলাচিপা থানার ওসি মো. মনিরুল ইসলাম বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পটুয়াখালী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা