kalerkantho

সোমবার । ১৩ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০। ১০ সফর ১৪৪২

বিয়ের কথা বলে ধর্ষণের ঘটনা চাপা দেওয়ার চেষ্টা!

ঝিকরগাছা (যশোর) প্রতিনিধি   

৩ আগস্ট, ২০২০ ১৮:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিয়ের কথা বলে ধর্ষণের ঘটনা চাপা দেওয়ার চেষ্টা!

যশোরের ঝিকরগাছায় পিতৃহারা এক তরুণী ধর্ষণের ঘটনাকে ধামা চাপা দেওয়ার চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। ধর্ষকের সঙ্গে বিয়ের কথা বলে একটি প্রভাবশালী মহল এ চেষ্টা করছেন। গত ৩০ জুলাই রাতে উপজেলার নাভারণ ইউনিয়নের রঘুনাথপুর বাকী গ্রামে এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে।

রঘুনাথপুর বাকী গ্রামের আলিমুর রহমান জানান, একই গ্রামের চান্দু মিয়ার ছেলে মেহেদী হাসান (১৯) ওইদিন রাতে তার (পিতৃহারা তরুণী) চাচাতো বোনের ঘরে জোরপূর্বক ঢুকে ধর্ষণ করে। প্রতিবেশীরা এসময় মেহেদী হাসানকে আটক করলে এক পর্যায় কতিপয় ব্যক্তি তরুণীর সঙ্গে বিয়ে দে‌ওয়ার কথা বলে ধর্ষককে ছেড়ে দেয়। 

এরপর থেকে তারা নানা তালবাহানা করে সময়ক্ষেপণ করে ধর্ষকের কাছ থেকে আর্থিক সুবিধা নিচ্ছে বলেও তিনি অভিযোগ করেন। আলিমুর রহমান ওই গ্রামের আশরাফ ছৈয়াকের ছেলে। তবে অভিযুক্ত ধর্ষকের বাবা চান্দু মিয়া জানান, মেয়ের সঙ্গে তার ছেলের প্রেমের সম্পর্ক আছে। আজ রাতে তাদের বিয়ে হবে। 

স্থানীয় মেম্বার জামাল হোসেন জানান, ধর্ষণের বিষয়টি শুনেছেন। তবে ধর্ষকের সঙ্গে বিয়ের কথা বলে একটি প্রভাবশালী মহল ঘটনা ধামা চাপা দে‌ওয়ার চেষ্টা করছে বলেও তিনি অভিযোগ পেয়েছেন।

থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মেজবাহ উদ্দীন আহমেদ জানান, বিষয়টি থানার জানা নেই। কোনো অভিযোগও পাওয়া যায়নি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা