kalerkantho

সোমবার  । ১৯ শ্রাবণ ১৪২৭। ৩ আগস্ট  ২০২০। ১২ জিলহজ ১৪৪১

তানোরে ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধনের নামে এমপি'র সমাবেশ!

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী   

১২ জুলাই, ২০২০ ২০:৩৪ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



তানোরে ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধনের নামে এমপি'র সমাবেশ!

রাজশাহীর ৯টি উপজেলার মধ্যে এখন পর্যন্ত তানোরে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ করোনা শনাক্ত হয়েছে। আজ রবিবার সকাল পর্যন্ত এখানে করোনার আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৫২ জন। তানোর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুশান্ত কুমার মাহাতো নিজেও করোনা আক্রান্ত। আছেন হোম আইসোলেশনে রয়েছেন। অন্যদিকে করোনা প্রতিরোধে সরকার সকল ধরণের জনসভা ও সমাবেশ নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছেন। ঠিক এমন পরিস্থিতিতে আজ রবিবার বিকেলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধনের নামে সমাবেশ করেছেন খোদ স্থানীয় এমপি ওমর ফারুক চৌধুরি। এ নিয়ে এলাকায় করোনা ছড়িয়ে পড়ার আতঙ্ক দেখা দিয়েছে।

জানা গেছে, তানোরের কাশিম বাজার এলাকায় তানোর টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজে ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করা হয় আজ বিকেল ৪টার দিকে। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইউএনও (অতিরিক্ত দায়িত্ব) আলমগীর হোসেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন- রাজশাহী-১ আসনের (তানোর-গোদাগাড়ী) এমপি ওমর ফারুক চৌধুরী। বিশেষ অতিথি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান লুৎফর হায়দার রশিদ ময়না, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আবু বাক্কার, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সোনিয়া সরদার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি খাদেমুন নবী বাবু চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক জিল্লুর রহমান। সাংগঠনিক সম্পাদক ওহাব হোসেন লালু অনুষ্ঠানের সঞ্চালনা করেন। এ ছাড়াও অনুষ্ঠানে উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধান, দর্লীয় নেতাকর্মীরা ও স্থানীয় কিছু মানুষ মিলে অন্তত দেড় হাজার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

জানা গেছে, এই অনুষ্ঠান উপলক্ষে গতকাল শনিবার থেকেই মঞ্চ তৈরির কাজ চলে। আজ সকালে মধ্যে সেটি শেষ হয়। এরপর বিকেলে এমপি উপস্থিত হন বিশাল বহর নিয়ে। পরে বিকেল চারটার দিকে ভিত্তি প্রস্থর উদ্বোধনের পরে জনসভা করেন এমপি। এখানে জনসভা করার আগে এমপি তানোর উপজেলা পরিষদ চত্বরেও জনসমাগম করে সমাজসেরা ভাতার কার্ড ও হুইল চেয়ার বিতরণ করেন।

এদিকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সভাপতিত্বে এই ধরণের অনুষ্ঠানের বিষয়ে জানতে চাইলে রাজশাহী জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল কালের কণ্ঠকে বলেন, এই ধরণের অনুষ্ঠান এই মূহুর্তে কিভাবে হলো সেটি আমারও জানা নেই। আমি খোঁজ নিয়ে দেখছি। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কেন এই ধরণের অনুষ্ঠান করার অনুমতি দিলেন সেটিও জানা নেই।

এদিকে এমপি ওমর ফারুক চৌধুরির সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, এতো মানুষ হবে জানা ছিলো না। মানুষ চলে এলে কি করবো আমরা। তবে অনেকদিন ধরে করোনার কারণে সভা-সমাবেশ না হওয়ায় মানুষ ছুটে এসেছে। তাদের জন্য বসার জায়গাও করা হয়েছিল।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা