kalerkantho

রবিবার। ২৫ শ্রাবণ ১৪২৭। ৯ আগস্ট ২০২০ । ১৮ জিলহজ ১৪৪১

'শিবচর আইসোলেশন কেন্দ্রে পাশের জেলার মানুষও চিকিৎসা পাবেন'

শিবচর (মাদারীপুর) প্রতিনিধি   

১১ জুলাই, ২০২০ ১৭:৩০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



'শিবচর আইসোলেশন কেন্দ্রে পাশের জেলার মানুষও চিকিৎসা পাবেন'

চিফ হুইপ ও আওয়ামী লীগ সংসদীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক নূর-ই-আলম চৌধুরী বলেছেন, শিবচরে ২০ শয্যার বিশেষায়িত করোনা আইসোলেশন কেন্দ্রে শিবচরসহ আশপাশের জেলার মানুষও (করোনা আক্রান্তরা) উন্নত চিকিৎসা পাবেন। এ জন্য আইসোলেশন কেন্দ্রে আধুনিক যন্ত্রপাতি ইতোমধ্যেই সংযোজন করা হয়েছে। চিকিৎসকসহ স্বাস্থ্য কর্মী পদায়ন শেষে রোগীরা ভর্তি হয়ে চিকিৎসা গ্রহণ করছেন। করোনা রোগীদের জন্য বিশেষায়িত আইসোলেশন কেন্দ্রের বিষয়ে জানতে চাইলে চিফ হুইপ মুঠোফোনে এসব কথা বলেন। 

স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা যায়, শিবচর আইসোলেশন কেন্দ্রটিতে চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী ব্যক্তিগত অর্থায়নে হাই ফ্লো নেজাল কেনোলো থেরাপি সিস্টেম, অক্সিজেন কনসেনট্রেটর মেশিন (অক্সিজেন জেনারেটর),পালস্ অক্সি মিটার, ইনফ্রাডার থাম্রোমিটার, বেশ কয়েকটি অক্সিজেন সিলিন্ডার, ফ্রিজ, এসিসহ নানাবিধ সুযোগ-সুবিধা সংযোজন করেন। পদায়ন দেওয়া হয়েছে ২ জন চিকিৎসক, ২ জন নার্সসহ ৭ জন স্বাস্থ্য কর্মী। ১০ দিন পরপর স্বাস্থ্য কর্মীরা পরিবর্তন হয়ে ১৪ দিন হোটেলে হোম কোয়ারেন্টিনে থাকবেন। রয়েছে বিদ্যুত না থাকলে জেনারেটরের ব্যবস্থা।

বৃহস্পতিবার শিবচরের দক্ষিণ বহেরাতলা হাজী আবুল কাশেম উকিল মা শিশু কল্যাণ কেন্দ্রকে ২০ শয্যার বিশেষায়িত আইসোলেশন কেন্দ্র হিসেবে উদ্বোধন করা হয়। শুক্রবার করোনাভাইরাস নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্বপ্রাপ্ত যুব ও ক্রীড়া সচিব মো. আখতার হোসেন শিবচরে একসভায় এসে চিফ হুইপের এ উদ্যোগ নিয়ে সাধুবাদ জানান। এটিকে শিক্ষণীয় বিষয় বলে তিনি আখ্যা দেন। 

চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী আরো বলেন, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের জন্য অক্সিজেন খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাই এখানে হাই ফ্লো নেজাল কেনোলো থেরাপি সিস্টেম, অক্সিজেন কনসেনট্রেটর মেশিন (অক্সিজেন জেনারেটর),পালস্ অক্সি মিটার, ইনফ্রাডার থাম্রোমিটার, বেশ কয়েকটি অক্সিজেন সিলিন্ডার সংযোজন করা হয়েছে। আরো যন্ত্রপাতি সংযোজন প্রক্রিয়া চলছে। এখানে রোগী ও স্বাস্থ্যকর্মীদের আবাসন, খাবার, নিরাপত্তা সব ব্যবস্থা করা হয়েছে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা